আজ: ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৪ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি, দুপুর ২:৩৩
সর্বশেষ সংবাদ
বিনোদন ২৫ বছরের বড় সুজনের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে দেবলীনা!

২৫ বছরের বড় সুজনের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে দেবলীনা!


পোস্ট করেছেন: অনলাইন ডেক্স | প্রকাশিত হয়েছে: ২১/০২/২০২৩ , ৪:১২ অপরাহ্ণ | বিভাগ: বিনোদন


গত বছর দেবলীনা আর তথাগতর বিয়ে ভাঙার খবরে উত্তাল হয়েছিল নেট দুনিয়া। তথাগত আর দেবলীনার বিচ্ছেদ মেনে নিতে পারেননি তাদের ভক্তরা। সেই সময় কম জলঘোলা হয়নি। এমনকী এতে নাম জড়িয়েছিল টলিউডের আরেক নায়িকা বিবৃতির। তবে এসবের মাঝে ফের একবার দেবলীনার বিয়ের পিঁড়িতে বসার খবর মিলছে।

যদিও এই বিয়ে রিয়েল লাইফে নয়, হতে চলেছে রিল লাইফে। পরিচালিকা পারমিতা মুন্সীর পরবর্তী সিনেমা ‘ম্যারেজ অ্যানিভার্সারী’তে একদম অন্যধারার একটা কাজ করতে চলেছেন।

সিনেমায় মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন দেবলীনা দত্ত ও তার বিপরীতে সুজন নীল মুখার্জী। এই দুই অভিনেতা ছাড়াও দেখা যাবে ইন্দ্রাণী ঘোষ ও ডক্টর সুজয় বিশ্বাসকে। অসমবয়স্ক দাম্পত্যের গল্প নিয়ে এই সিনেমা। সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্র দুটোর নাম, অরুণাভ আর বিপাশা। যাদের মধ্যেকার বয়সের ফারাক চোখে পড়ার মতো।

অনাথ বিপাশাকে বিয়ে করেন ২৫ বছরের বড় অরুণাভ। দেখতে বাইরে থেকে আর পাঁচটা সম্পর্কের মতো হলেও ভেতরে ভেতরে একদম অন্যরকম। তবে সবকিছু হঠাৎ বদলে যায় তাদের ২৫ বছরের বিবাহবার্ষিকীতে। সেই রহস্যরই জট খুলবে সিনেমায়।

ম্যারেজ অ্যানিভার্সারিতে দেখানো হবে পারিবারিক বেশ কিছু ঝামেলা দিকও। চারপাশে এমন অনেক দম্পতি আছে যাদের বাইরে থেকে দেখলে খুব সুখী মনে হয়, কিন্তু সম্পর্কের অভ্যন্তরে রয়েছে এক অন্য দিক। বিপাশা-অরুণাভর সম্পর্কের হালও এটাই।

ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাওয়ার কথা আছে সিনেমাটির। সঙ্গে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে যাওয়ারও প্রস্তুতি চলছে। সিনেমার শ্যুটিং এরমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। ফার্স্ট লুকে দেবলীনা-সুজনের ছবিও এসেছে সামনে।

এদিকে জানা গেছে, আপাতত আলাদা থাকছেন তথাগত ও দেবলীনা। দুজনের মধ্যে কথাও হয় খুবই কম। আলাদা হওয়া নিয়েও একে-অপরের থেকে ভিন্নমত পোষণ করেছেন।

তথাগত বলেন, বন্ধুত্ব দিয়ে সম্পর্কের শুরু। কোথাও সেটাই নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। আর সেজন্য আমরা বারবার হোঁচট খেয়ে পড়ছিলাম। তাই আমরা ঠিক করলাম আলাদা থাকাটাই শ্রেয়।

এদিকে তথাগতর সঙ্গে সহমত নন দেবলীনা। তিনি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আমাদের বন্ধুত্বটা পিকচার পারফেক্ট ছিল আমার কাছে। আমি হোঁচট খাইনি। আলাদা হওয়াটা আমাদের মিউচুয়াল সিদ্ধান্ত ছিল না। আমি তথাগতকে বলেছিলাম এবার তুই আলাদা থাক। আমাদের আলাদা হওয়ার একটা কারণ, একটা গোল গল্প আছে। সেটা আমাদের হাঁড়ির খবর। সেটা নিয়ে আমি একটা কথাও বলব না। শুধু জানালাম সম্পর্ক ভাঙার যে কারণ তথাগত বলছে তা নিয়ে আমি সহমত নই।

Comments

comments