আজ: ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৪ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি, বিকাল ৩:০৪
সর্বশেষ সংবাদ
অপরাধ গাজীপুরে প্রতারণার হোতা গ্রেপ্তার

গাজীপুরে প্রতারণার হোতা গ্রেপ্তার


পোস্ট করেছেন: অনলাইন ডেক্স | প্রকাশিত হয়েছে: ১৩/০২/২০২৩ , ১২:১৫ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: অপরাধ


বাবুল মিয়া ,গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি:
অনলাইনে পণ্য অর্ডারকারীর ব্যক্তিগত ও আপত্তিকর তথ্য,ছবি,ভিডিও অভিনব কায়দায় সংগ্রহ করে ব্ল্যাক মেইলকারী গ্রেফতার।
ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান দারাজের বিক্রয়কর্মী ভুয়া ওয়েবসাইট ও অনলাইনে পন্য ডেলিভারির সময় কৌশলে নারী ও উঠতি বয়সী মেয়েদের টার্গেট করে মেয়েদের মোবাইলে গুগল এ্যাড্রেস যুক্ত করে ব্যক্তিগত ছবি,ভিডিও হাতিয়ে নিত।
পরে সে-সব আপত্তিকর ছবি ভিডিও দিয়ে ব্ল্যাক মেইল করতেন। হাতিয়ে নিতেন লাখ লাখ টাকা এমন প্রতারনার  অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে গাজীপুরের মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের সিটি-সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ।
গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার চরগাঁওকোড়া গ্রামের আজিম উদ্দিনের ছেলে মিজানুর রহমান ওরফে আল- আমিন(২২)। সে গাজীপুর মহানগরীর রথখোলা স্বপন মিয়ার টিনশেড বাড়িতে  ভাড়া থাকতেন।
গতকাল (শনিবার)  জিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ-উত্তর) রেজওয়ান আহমেদ  (পিপিএম) এর নেতৃত্বে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় সদর থানা পুলিশের চৌকস টিম নগরীর রথখোলা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেন। এ অভিযানে ডেলিভারীম্যান মিজানুর রহমানকে রাত সোয়া ১১টার দিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।
এ-বিষয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিটন উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ উত্তর) রেজওয়ান আহমেদ জানান, একটি চক্র বেশ কিছুদিন ধরে ভোক্তাদের কাছে পণ্য বিক্রির পাশপাশি ব্ল্যাকমেইল করে  অর্থ আত্মসাৎ করে আসছিল।
নগরীর একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী অনন্যা আক্তার (১৫) এর আপত্তিকর কিছু ছবি দারাজের ডেলিভারী ম্যান বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিবে বলে টাকা দাবী করছিল। টাকা না দিলে অনন্যা আক্তার এর ছবি ভাইরাল করার হুমকি প্রদান করে। এতে তার মেয়ে লোক লজ্জার ভয়ে মানুষিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে এবং পড়ালেখা বন্ধ করে দিয়ে একাধিকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করে। ফলে ভুক্তভোগী পরিবারটি গত এক সপ্তাহ যাবৎ দূর্বিষহ সময় পার করছিল।
দারাজের ডেলিভারী ম্যান মিজানুর  ভিকটিম অনন্যা আক্তারসহ অনেক নারীর আপত্তিকর ও গোপন মুহুর্তের ছবি নিয়ে ব্ল্যাক মেইল করে  টাকা চাইত এবং টাকা না দিলেই নেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিত। মিজানুরের মোবাইলে এমন বহু নারীর ব্যক্তিগত মুহুর্ত ও আপত্তিকর ছবিবসহ বিভিন্ন ব্যক্তির ১১ টা ইমেইল আইডি লগইন অবস্থায় পাওয়া যায়। যাদের আইডি লগইন অবস্থায় পাওয়া গেছে তাদের বিস্তারিত নাম ঠিকানা সংগ্রহের চেষ্টা চলছে। পরে ভিকটিমের পিতা হাশেম বাদী হয়ে আটককৃত এর বিরুদ্ধে সদর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা ও পর্নোগ্রাফী আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

Comments

comments