আজ: ২৬শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি, দুপুর ২:৩৩
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, রংপুর বিভাগ, সারাদেশ ভুরুঙ্গামারীতে বড় ভাই কর্তৃক আপন ছোট ভাইকে হত্যা

ভুরুঙ্গামারীতে বড় ভাই কর্তৃক আপন ছোট ভাইকে হত্যা


পোস্ট করেছেন: অনলাইন ডেক্স | প্রকাশিত হয়েছে: ২১/১১/২০২২ , ৬:১৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,রংপুর বিভাগ,সারাদেশ


কামরুল হাসান কাজল ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে আপন বড় ভাই ও তার পুত্র কর্তৃক ছোট ভাইকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (২১ নভেম্বর) আনুমানিক সকাল আটটার দিকে নিজ ধান ক্ষেতে ধান কাটতে গেলে আপন বড় ভাইয়ের পরিবারের সদস্যরা মারধর করলে ঘটনাস্থলে নিহত হয় ছোট ভাই আজিজুল হক।

ঘটনাটি ঘটেছে ভূরুঙ্গামারী উপজেলার বঙ্গ সোনাহাট ইউনিয়নের কালিরহাট বাজারের পূর্ব অংশের চর বলদিয়া গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উক্ত গ্রামের মৃত শাখাতুল্লাহ (ঘেগু শাহ)’র পুত্র আজিজুল হক (৫৫) ও ফজল হক(৬৫) দুই ভাই পাশাপাশি দুটি বাড়িতে বসবাস করেন । ২-৩ দিন পূর্বে ছোট ভাই আজিজুল হকের বাড়ি থেকে ৩৭ হাজার টাকা হারিয়ে যায়। বিষয়টি তিনি বড় ভাই ফজল হক ও দুই পুত্রকে জানিয়ে অভিযোগ করেন যে টাকাটা কে নিয়েছে? তোমরা তো পাশাপাশি বাড়িতে থাকো। এ বিষয়ে শালিস বৈঠকের কথাও তিনি বলেছিলেন ।

এমতাবস্থায় সোমবার সকাল আনুমানিক আটটার দিকে ছোট ভাই আজিজুল হক তার নিজের ধান ক্ষেতে কাজ করতে গেলে বড় ভাই ফজল হক তার স্ত্রী , দুই পুত্র সোহেল (৩৫), রতন (২৪) এক পুত্রবধূ সকলে মিলে মারধর শুরু করে এক পর্যায়ে ঘটনাস্থলেই ছোট ভাই আজিজুল হক নিহত হয়। ঘটনার পর অভিযুক্তের পরিবার সদস্যরা পলাতক রয়েছে।

পরে ভূরুঙ্গামারী পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বঙ্গসোনাহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লিটন মিয়া জানান, বিষয়টি পারিবারিক টাকা পয়সা সংক্রান্ত বলে জানতে পেরেছি, সেটা নিয়ে আজকে আটটা সাড়ে আটটার দিকে আজিজুল হক ধান কাটা অবস্থায় তাকে মারধর করে বড় ভাইয়ের পরিবার এবং ঘটনাস্থলে নিহত হলে পরে ভুরুঙ্গামারী থানার ওসি, ওসি (তদন্ত ) সহ পুলিশ এসে লাশের সুরতহাল করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভুরুঙ্গামারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলমগীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশের সুরতহাল করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে, পোস্টমর্টেমের জন্য পাঠানো হবে। আসামিদের কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। নিহতের ছেলে ঢাকায় থাকে আসলে মামলার রুজু হবে।

Comments

comments

Close