আজ: ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি, দুপুর ১:৫৬
সর্বশেষ সংবাদ
চটগ্রাম বিভাগ, জেলা সংবাদ, সারাদেশ সরাইলে চেয়ারম্যানের আপত্তিকর ভিডিও ফাঁসের ঘটনায় পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা, গ্রেফতার ২

সরাইলে চেয়ারম্যানের আপত্তিকর ভিডিও ফাঁসের ঘটনায় পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা, গ্রেফতার ২


পোস্ট করেছেন: অনলাইন ডেক্স | প্রকাশিত হয়েছে: ২৩/০৬/২০২২ , ৬:০০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: চটগ্রাম বিভাগ,জেলা সংবাদ,সারাদেশ


আসাদুজ্জামান আসাদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এক নারীর সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুরের আপত্তিকর একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এই নিয়ে সমালোচনা ও বির্তক চলছে পুরো উপজেলা জুড়ে। যদিও প্রথমে রফিক উদ্দিন ঠাকুরের দাবি করেন এই ভিডিও সর্ম্পকে কিছুই জানেন না। তিনি সাংবাদিকদের বলেছিলেন, আমাকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয় করতে অন্য কারোর ভিডিওতে আমার চেহারা জুড়ে দিয়ে এই ভিডিওটি বানানো হয়েছে।

এদিকে রফিক উদ্দিন ঠাকুরের ছেলে সাইফুল ইসলাম রাব্বি সরাইল থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা করেন। সেখানে তিনি উল্লেখ্য করেন ভিডিওতে তার বাবার সাথে দেখা যাওয়া ওই নারী তার সৎ মা।

এ ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা চেয়ারম্যান ও তার দ্বিতীয় স্ত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরালের অপরাধে ছাত্রলীগ নেতাসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতাররা হলেন- উপজেলা শ্রমিকলীগের সদস্য সচিব শেখ আবুল কালামের ছেলে ও উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক শেখ আফরান আহমেদ আরিফ (১৯) এবং কুট্টাপাড়া এলাকার সুলতান মিয়ার ছেলে তরিকুল ইসলাম আপেল (২৯)।

এ বিষয়ে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসাইন বলেন, সম্প্রতি উপজেলা চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুরের একটি আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় বুধবার রাতে উপজেলা চেয়ারম্যানের ছেলে সাইফুল ইসলাম রাব্বি সরাইল থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা করেন। এতে উল্লেখ্য করেছেন, তার বাবা ২০১৭ সালে পরিবারের সম্মতিতে দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন। সম্প্রতি তার বাবার সঙ্গে সৎ মায়ের একান্ত ব্যক্তিগত ভিডিও ধারণ করে তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছে। মামলা দায়েরের পর কুট্টাপাড়া এলাকা থেকে বুধবার রাতে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়।

ওসি আরও বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যানের দ্বিতীয় বিয়ের কাবিননামা আমাদের দিয়েছেন। গ্রেফতার আসামিরা মোবাইলে অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে সংরক্ষণ, প্রচার ও সরবরাহ করায় পর্নোগ্রাফি আইনের ৮ ধারায় অপরাধ করেছেন। তাদের মোবাইলে এসব আলামত থাকায় তা জব্দ করা হয়েছে। দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

Comments

comments

Close