আজ: ২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, ভোর ৫:২২
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে ১ বাংলাদেশি আহত

ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে ১ বাংলাদেশি আহত


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৮/০৪/২০২২ , ১১:৩৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


মৌলভীবাজার প্রতিনিধি::

মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের বটুলী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে এক বাংলাদেশী আহত হয়েছে‌। বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) ভোরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে ভারতীয় গনমাধ্যম সহ স্থানীয়রা নিশ্চিত করেছেন। আহত ব্যক্তি উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের মধ্য বটুলী গ্রামের সমসের আলীর ছেলে সেফুল মিয়া (৪০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের মধ্য বটুলী গ্রামের সমসের আলীর ছেলে সেফুল মিয়াসহ বেশ কয়েকজন বৃহস্পতিবার রাতে গরু আনতে ভারতীয় সীমান্তের কাঁটাতারের কাছাকাছি যায়। গরু আনতে কাঁটা তারের বেড়া কাটার সময় ভোর রাতে তাদের উপর ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ গুলি চালায়। এসময় বিএসএফের গুলিতে সেফুল মিয়া আহত হন। সেফুল মিয়ার সঙ্গীরা তাকে সীমান্তে ফেলে রেখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ সেফুল মিয়াকে আটক করে নিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় তাকে আটক করে ধর্মনগর থানা পুলিশের কাছে বিএসএফ হস্তান্তর করে। বর্তমানে সেফুল মিয়া পুলিশি হেফাজতে ধর্মনগর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য ইমতিয়াজ গফুর মারুফ বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিএসএফ ইতিপূর্বে বেশ কয়েকবার বিজিবির মাধ্যমে সতর্ক করেছিল। পরে বাধ্য হয়ে গুলি করেছে। রাতে তাকে মৃত ভেবে ফেলে যায়, সকালে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে।

এ ব্যাপারে ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ বলেন, ফুলতলা ইউনিয়নের মধ্য বটুলী গ্রামের সেফুল মিয়া সীমান্তে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে আহত হওয়ার খবর পেয়েছি।

ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের এর গুলিতে উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের বটুলী গ্রামের এক জন আহত হওয়ার খবর জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সঞ্জয় চক্রবর্তী নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে জানতে জুড়ী ফুলতলা বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারের (০১৭৬৯৬১৩৫৭৩) মোবাইল ফোনে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

Comments

comments

Close