আজ: ২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, ভোর ৫:১৯
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, প্রধান সংবাদ, শিক্ষাঙ্গন অযত্ন ও অবহেলায় নস্ট হচ্ছে বেরোবির অত্যাধুনিক রেডিও স্টেশন

অযত্ন ও অবহেলায় নস্ট হচ্ছে বেরোবির অত্যাধুনিক রেডিও স্টেশন


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৪/০৪/২০২২ , ৯:৫৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,প্রধান সংবাদ,শিক্ষাঙ্গন


বেরোবি প্রতিনিধিঃ

অনেকটা ঢাক-ঢোল পিটিয়ে প্রথম ক্যাম্পাস রেডিও চালুর তকমা গায়ে লাগালেও উদ্বোধনের পর থমকে আছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস রেডিও’র কার্যক্রম। আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর দীর্ঘ সময় পার হলেও মুখ থুবড়ে পড়ে আছে অত্যাধুনিক রেডিও স্টুডিওটি। এভাবে দীর্ঘদিন পড়ে থাকার ফলে বিকল হচ্ছে বিভিন্ন যন্ত্রাংশ। সম্প্রচার বিশেষজ্ঞরা বলছেন আর কিছুদিন দেরি করা হলে সম্পূর্ণভাবে বিকল হবে এই অত্যাধুনিক রেডিও স্টেশন।

গত উপাচার্যের আমলে উদ্বোধন হওয়া এই রেডিওর অফিসিয়ালি কারো দায়িত্ব না থাকায় ২০১৯ সাল থেকে এখন পর্যন্ত কার্যক্রম বন্ধ আছে দীর্ঘদিন থেকে। ফলে ধুলাবালি আর ময়লা জমে কার্যক্ষমতা হারিয়েছে কিছু যন্ত্রাংশ। গেলো বছরের ২ নভেম্বর একটি পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু কমিটি গঠনের প্রায় ছয় মাস অতিবাহিত হলেও আলোর মুখ দেখেনি রেডিওর কার্যক্রম। এদিকে ক্যাম্পাস রেডিও উদ্বোধনের পর থেকে থমকে থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা জানায়, বন্ধ থাকা এই রেডিও চালু হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক অঙ্গনসহ বিভিন্ন সহশিক্ষা কার্যক্রম আরো গতিশীল হবে।

রেডিও’র ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এমআইএস সল্যুশনের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ২০১৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে প্রায় সাড়ে ২৪ লাখ টাকা ব্যয়ে স্থাপিত হয় অত্যাধুনিক এই রেডিও স্টেশনটি। এরপর সম্পূর্ণ সচল অবস্থায় হস্তান্তর করা হয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে। কিন্তু দীর্ঘদিন সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ না হওয়া এবং পড়ে থাকার ফলে নস্ট হয়ে গেছে কনসোল ও সাউন্ড কার্ড নামের দুটি পার্টস। কনসোল মেরামত যোগ্য হলেও নতুন সাউন্ড কার্ড ক্রয় করতে হবে। এর জন্য ব্যয় হবে আনুমানিক ৩০ থেকে ৬০ হাজার টাকা।

ওই কমিটিতে নির্বাহী পরিচালকের দায়িত্বে থাকা বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. নিতাই কুমার ঘোষ বলেন, দায়িত্ব পাওয়ার পরে রেডিও চালু করার জন্য গিয়ে দেখি রেডিও সচল নেই। দুই দফায় ইঞ্জিনিয়ারের সাথে কথা বলেছি। যন্ত্রাংশ মেরামত করে দ্রুত রেডিও চালু করা হবে।

ক্যাম্পাস রেডিও’র গুরুত্ব সম্পর্কে বাংলাদেশ এনজিও’স নেটওয়ার্ক ফর রেডিও এন্ড কমিউনিকেশন এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বজলুর রহমান বলেন, ক্যাম্পাস রেডিও শুধুমাত্র শিক্ষার্থীদের জন্য নয় বরং শিক্ষক-কর্মকর্তা ও বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার গ্রামীন কমিউনিটির সাথে যোগসূত্র স্থাপনের মাধ্যমে ৫ ধরনের স্কিল ডেভেলপমেন্ট এ সহায়তা করবে। আধুনিক এই যুগে মিডিয়ায় কথা বলাসহ মিডিয়া নিয়ন্ত্রণের কলাকৌশল এখান থেকে সবাই আয়ত্ত করবে। সেই সাথে বন্ধ থাকা এই ক্যাম্পাস রেডিও দ্রুত চালু করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আহবান জানান তিনি।

Comments

comments

Close