আজ: ২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, ভোর ৫:৩৩
সর্বশেষ সংবাদ
আন্তর্জাতিক, প্রধান সংবাদ শেহবাজ শরিফকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা বিরোধীদের

শেহবাজ শরিফকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা বিরোধীদের


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৪/০৪/২০২২ , ১২:৩৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: আন্তর্জাতিক,প্রধান সংবাদ


মোঃ নাসির:

ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব বাতিল এবং প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি জাতীয় পরিষদ ভেঙে দেওয়ার পর রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে পড়েছে পাকিস্তান।

রোববার (৩ এপ্রিল) বিরোধীরা সংসদের অধিবেশন পুনরায় শুরু করে এবং ডেপুটি স্পিকারের অনাস্থা প্রস্তাব বাতিল করাকে অবৈধ ঘোষণা করে। একই সঙ্গে শেহবাজ শরীফকে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ঘোষণা করেন তারা।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ভাই শেহবাজ শরিফও নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অধিবেশনে ভাষণ দেন।

একটি ভিডিও টুইট করে পাকিস্তান পিপলস পার্টির নেতা শেরি রেহমান দাবি করেন, ১৯৭ জন সদস্য পিএমএল-এন এমপি আয়াজ সাদিককে নতুন স্পিকার হিসেবে নির্বাচিত করেছেন।

আয়াজ সাদিক স্পিকারের চেয়ারে বসার পর তিনি ইমরান খান সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবের ভোটকে পুনরায় সক্রিয় করেন। ইতোমধ্যে ক্ষমতাসীন জোটের সদস্যরা অধিবেশন ছেড়ে চলে যাওয়ায় প্রস্তাবের পক্ষে ভোট পড়েছে।

যদিও প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মনে করতে পারেন তিনি সংসদ ভেঙে দিয়ে এবং নির্বাচনের আহ্বান জানিয়ে রাজনৈতিক গুগলি বোলিং করেছেন, কিন্তু নির্বাসিত (পিএমএল-এন)-এর প্রতিষ্ঠাতা নওয়াজ শরীফ ঠিক এটাই চেয়েছিলেন।

২৫ এপ্রিল পর্যন্ত অধিবেশন মুলতবি হওয়ার পরে তা পুনরায় আহ্বান করা বিরোধীদের একটি প্রতিবাদী পদক্ষেপ। নিয়মানুযায়ী, সংসদ স্থগিত হয়ে গেলে শুধু প্রেসিডেন্ট ও স্পিকারই অধিবেশন ডাকতে পারেন।

প্রসঙ্গত, এদিন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পরামর্শে সংসদ ভেঙে দেন প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি।

এর আগে দেশটির সংবিধানের পঞ্চম অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হওয়ায় ইমরানের বিরুদ্ধে বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব খারজি করে দেন দেশটির ডেপুটি স্পিকার কাসিম খান সুরি।

এর পরেই জাতির উদ্দেশে এক ভাষণে প্রেসিডেন্টকে সংসদ ভেঙে দেওয়ার পরামর্শ দেন ইমরান খান। তার কিছুক্ষণ পরেই আইনসভা ভেঙে দেওয়ার প্রস্তাব অনুমোদন করেন প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি।

এই পরিস্থিতিতে আগামী তিন মাস অর্থাৎ ৯০ দিনের মধ্যে দেশটিতে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

195 members voted for the motion after last illegal ruling of Qaiser/Suri. National Assembly right now pic.twitter.com/XDtHDm387Q

— SenatorSherryRehman (@sherryrehman) April 3, 2022

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

Comments

comments

Close