আজ: ২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, ভোর ৫:২৯
সর্বশেষ সংবাদ
আন্তর্জাতিক রুশ-ইউক্রেন সংঘাতের সময় ভারত ভুল পক্ষে অবস্থান নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের উপনিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা

রুশ-ইউক্রেন সংঘাতের সময় ভারত ভুল পক্ষে অবস্থান নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের উপনিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ অনলাইন | প্রকাশিত হয়েছে: ০৪/০৪/২০২২ , ৭:৫৫ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: আন্তর্জাতিক


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পর পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ যখন রাশিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে, তখন দেশটি থেকে তেল কিনছে ভারত।চলমান রুশ-ইউক্রেন সংঘাতের সময় ভারত ভুল পক্ষে অবস্থান নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের উপনিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা দলীপ সিং।যুদ্ধ শুরুর দিকে ইউক্রেনের পক্ষে ভারত আছে বলে মনে হচ্ছিল। অবস্থান নিয়েছিল ভারত। কিন্তু দিন যতই গড়িয়েছে রাশিয়ার পক্ষে ভারতের অবস্থান ততই পরিষ্কার হয়েছে। সরাসরি স্বীকার না করলেও মস্কোর পক্ষেই অবস্থান নিয়েছে নয়াদিল্লি। পশ্চিমা বিশ্ব যখন রাশিয়ার ওপর বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে, তখন দেশটি থেকে বিপুল পরিমান তেল কিনছে ভারত।সম্প্রতি ভারত সফর করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের উপনিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা দলীপ সিং। তার মাধ্যমে ভারতকে কড়া বার্তা দিয়েছে আমেরিকা। দলীপ সিং বলেছেন, রাশিয়ার বিরোধিতা না করে বড় ধরনের ভুল করছে ভারত। বিপদে পড়লে নয়াদিল্লিকে বাঁচাতে আসবে না মস্কো।রাশিয়া থেকে ভারত যেন কোনো কিছু আমদানি না করে, তা নিয়েও সতর্ক বার্তা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। গত বুধবার দুই দিনের ভারত সফরে এসে দলীপ সিং বেইজিং ও মস্কোর মধ্যে সীমাহীন অংশীদারি সম্পর্কের কথাও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘রাশিয়ার বিরোধিতা না করে বড় ধরনের ভুল করছে ভারত। যদি চীন আবারও ভারত সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা লঙ্ঘন করে, তখন কিন্তু রাশিয়া তাদের সাহায্যে এগিয়ে আসবে না। এ আশা যেন না করা হয়, বিপদে পড়লে ভারতকে বাঁচাতে আসবে রাশিয়া।ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলার সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন এই কূটনীতিক। দলীপ সিং বলেন, ‘রাশিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে ভারত বা অন্য কোনো দেশ আর্থিক লেনদেনে জড়িত হোক তা চায় না যুক্তরাষ্ট্র।’ নয়াদিল্লি-মস্কোর সম্পর্ক উন্নয়নকেও ভালোভাবে দেখছে না ওয়াশিংটন। দলীপ সিং আরও বলেন, কোনো দেশ যেন রাশিয়াকে আর্থিকভাবে সমর্থন না করে, সেরকম পরিস্থিতি তৈরি করতে চাই। যদি কেউ মস্কোর পাশে দাঁড়ায়, তবে তার ফলও ভুগতে হবে।

Comments

comments

Close