আজ: ২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, ভোর ৫:১৬
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, রংপুর বিভাগ ডিবি পুলিশের এএসআই রাহেনুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলার চার্জ গঠন আজ

ডিবি পুলিশের এএসআই রাহেনুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলার চার্জ গঠন আজ


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ৩০/০৩/২০২২ , ৯:০৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,রংপুর বিভাগ


শরিফা বেগম শিউলী:
ডিবিপুলিশের এএসআই রাহেনুল ইসলামসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে স্কুলছাত্রী গণধর্ষণ মামলার চার্জ গঠন হচ্ছে  বৃহষ্পতিবার। এরআগে গত বছর ৭ মার্চ আদালতে এই মামলার চার্জশিট দেন পিবিআই-এর পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম। কিন্তু এজাহার ও চার্জশিটে ঘটনার তারিখের ভিন্নতাসহ নানা অসঙ্গতি, এমন কী ভিকটিম নিজেই এই ঘটনায় রাহেনুল জড়িত নন, বরং জোড় করে তাকে জড়ানোর অভিযোগ তোলায় মামলার ভবিষ্যৎ নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা।

মামলায় গণধর্ষণের অভিযোগ থাকলেও ডিবিপুলিশের এএসআই রাহেনুলের বিরুদ্ধে প্রেমের সূত্রে ধর্ষণের অভিযোগ এনে ২০২১ সালের ৭ মার্চ আদালতে এই মামলার চার্জশিট দিয়েছে পিবিআই। এজাহারে ঘটনার তারিখ ২০২০ সালের ২৩ অক্টোবর থাকলেও চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়েছে ২০২০ সালের ১৮ অক্টোবর।

ধর্ষণের আগে ১৮ অক্টোবর ভিকটিমকে নিয়ে অভিযুক্ত এএসআই রাহেনুল রংপুর নগরীর দেশ রেস্টুরেন্টে  কফি পান করেন বলে চার্জশিটে উল্লেখ করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা। কিন্তু জেলা প্রশাসনের নথিপত্র বলছে, এর ৭দিন আগেই রেস্টুরেন্টটি অবৈধ স্থাপনা হিসেবে উচ্ছেদ করা হয়েছিলো।

ধর্ষিতার ডাক্তারি পরীক্ষা ও আসামীদের ডিএনএ রিপোর্ট জোড়ালো নয়। উপরন্তু ভিকটিম নিজের বাবা-মায়ের বিরুদ্ধে এএসআই রাহেনুলের নামে মিথ্যা অপবাদ দিতে নির্যাতনের অভিযোগ এনে পারিবারিক সুরক্ষা আইনে মামলা করে আদালতে। গত ১৫ মার্চ হারাগাছের আমলি আদালতে এবিষয়ে শুনানী অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও ভিকটিম প্রাপ্তবয়ষ্ক নয়, এমন আবেদনের প্রেক্ষিতে পরেরদিন বাবা-মায়ের জিম্মায় ভিকটিমকে ফিরিয়ে দেন আদালত।

কিন্তু গত সোমবার ভিকটিম নিখোঁজ- এমন তথ্য দিয়ে হারাগাছ থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করে ভিকটিমের পরিবার। কিন্তু এখবর জেনে ভিকটিম নিজে থানায় গিয়ে হাজির হলে হারাগাছ থানা পুলিশ ভিকটিমকে আদালতে সোপর্দ্দ করে। আদালতের নির্দেশে ভিকটিমকে রংপুর নগরির একটি শিশু পুণর্বাসন কেন্দ্রে রাখা হয়েছে।

ডিবিপুলিশের এএসআই তাকে ধর্ষণ করেননি, জোড় করে তাকে জড়াতে নিজের বাবা-মা নির্যাতন করছে- ভিকটিমের এমন অভিযোগের পর মামলার যৌক্তিকতা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। অবশ্য বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শারমীন আরা অভিযোগ করে বলছেন, জামিনে মুক্তি পেয়ে মামলার প্রধান আসামী রাহেনুল ভিকটিমকে প্রভাবিত করছে। ভিকটিম এখন সম্পূর্ণ অন্যরকম আচরণ করছে বলে দাবি করেন তিনি।

বৃহষ্পতিবার এই মামলায় আসামীদের বিরুদ্ধে চার্জগঠনের নির্ধারিত তারিখ। রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন  বিশেষ আদালত-২-এর বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর খন্দকার রফিক হাসনাইন বলছেন, পুলিশ সদস্যের এমন অপরাধের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য আদালতে লড়বেন।

ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে ২০২০ সালের ২৬ অক্টোবর হারাগাছ থানায় মামলাটি করেন। তদন্ত শেষে ২০২১ সালের ৭মার্চ পিবিআই-এর পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম ৫ আসামীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেন।

Comments

comments

Close