আজ: ২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, ভোর ৫:৩১
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, প্রধান সংবাদ আবারো আলোচনায় ইসলামী বক্তা মুফতী গিয়াস উদ্দিন তাহেরী

আবারো আলোচনায় ইসলামী বক্তা মুফতী গিয়াস উদ্দিন তাহেরী


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৪/০৩/২০২২ , ১০:০৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,প্রধান সংবাদ


রুবেল আহমদ, সিলেট জেলা প্রতিনিধি :

বিভিন্ন ঘটনা প্রবাহে  আলোচিত সমালোচিত ইসলামী বক্তা মুফতী গিয়াস উদ্দিন তাহেরী সিলেট সাইবার ট্রাইবুনালে  স-শরীরে উপস্থিত হয়ে ২৪ শে মার্চ বিভাগীয় সাইবার ট্রাইবুনালে মামলার আবেদন করেন।
তার আইনজীবি সিলেট জেলা বারের সাবেক সভাপতি এটি এম ফয়েজ   সাংবাদিকদের জানান,  আজকের মামলাটি শুনানির জন্য আগামী ৩১ শে মার্চ সময় নির্ধারণ করছেন মহামান্য আদালত।
এদিকে গত মঙ্গলবার (২২ মার্চ)  বালাগঞ্জের পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন মাঠে  মাহফিলের আয়োজন করেছিলেন স্থানীয়রা। মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ করা হয় তাহেরী কে  তার পিএস এর মাধ্যমে। তাকে অগ্রীম ৩০ হাজার টাকা ও প্রদান করা হয়। কিন্তুু মাহফিল শুরু হওয়ার আগের দিন থেকে ঐ পিএস এর ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বার টি বন্ধ পাওয়া যায়। মাহফিলের সময় আয়োজক কমিটি যখন মাইকে ঘোষণা দেন তাহেরী আসবেন না তার পিএস এর মোবাইল নাম্বার টি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে তখন উত্তেজিত হয়ে পড়েন আগত মুসল্লীয়ান গন ।  অনেকে বিভিন্ন ধরণের স্লোগান দেন ,  গালাগালি করেন ।  বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি হয়। আয়োজক কমিটি উপস্থিত  সবার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাহেরীর নজরে আসলে ঐ দিন তিনি তার ব্যাক্তিগত ফেইসবুক আইডিতে একটি পোস্ট করেন তার হুবহু তুলে ধরা হলো…

পোস্টে তাহেরি লেখেন-
‘আজকে দিনের বেলা একটি ফেসবুক লাইভ ও ইসলামী সুন্নী মহা সম্মেলনের একটি পোস্টার আমার নজরে এসেছে, উক্ত লাইভে আমাকে নানা ভাবে দোষারোপ করে কথা বার্তা বলা হয়েছে। পোস্ট গুলোতে মানহানীকর কথা বলা হয়েছে। যা কখনও কাম্য নয়,আমি দৃঢ় চিত্তে বলতে চাই, আমাকে দাওয়াত না দিয়ে মাহফিল কমিটি প্রতারণামুলক ভাবে আমার নাম পোস্টারে ব্যবহার করেছে। প্রতারণা মুলক ভাবে পোস্টারে আমার নাম ব্যবহার করে লক্ষ মানুষের কাছে আমাকে অপমান করেছে। আবার ফেসবুক আইডিতে লাইভ করে মানহানিকর কথা বলছে। আমি কখনো দাওয়াত রাখলে মিস করি না,ঐ মাহফিলের কমিটির লোকজন কে চ্যালেঞ্জ করছি তারা কোন প্রমান দিতে পারবেনা আমি কখনও দাওয়াত নিয়েছি। যদি কোন প্রতারক আমার নাম ব্যবহার করে কোন প্রতারণা করে সেটার জন্য আমি দায়ী নয়, সংশ্লিষ্টরা দায়ী।আমার সাথে কখনও মাহফিল কমিটি যোগাযোগ করে নাই, আজকে বিকাল সাড়ে ৫ টায় সাংবাদিক আজাদ ভাই এর মাধ্যমে এ যোগাযোগ হলে এই প্রতারণা খবর জানতে পারি,কে বা কারা আমার নামে প্রোগ্রাম দিয়ে ৩৩ হাজার টাকা নিয়েছে। তাই উক্ত মাহফিল কমিটি প্রতারণা কারী ও ফেসবুক লাইভের বিরুদ্ধে আগামীকাল সাইবার আইনে ব্যবস্থা গ্রহন করছি।সব মুনাফেক শয়তানের মুখোশ উন্মোচন হবে। ইনশাআল্লাহ।

Comments

comments

Close