আজ: ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২১শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ১২:০৪
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ দেড় মাস ধরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ হাসপাতালের লিফট নষ্ট, ভোগান্তি

দেড় মাস ধরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ হাসপাতালের লিফট নষ্ট, ভোগান্তি


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২১/০৩/২০২২ , ১০:৩১ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


মোঃ অনিক দেওয়ান, স্টাফ রিপোর্টার:

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৫০ শয্যার জেলা সদর হাসপাতালের লিফট প্রায় দেড়  মাস  ধরে নষ্ট। লিফট সচল না থাকায় চরম বিপাকে পড়েছেন রোগী ও তাদের স্বজনরা।

কর্তৃপক্ষ লিফট সচল করার কোনো উদ্যোগ এখনো নেয়নি বলে অনেকেই অভিযোগ করছেন।

জানা গেছে, সদর হাসপাতালটিই জেলার প্রায় ১৯ লাখ জনগণের জন্য আধুনিক ও উন্নত সেবার একমাত্র চিকিৎসা কেন্দ্র। প্রতিদিন গড়ে এ হাসপাতালে ৫০০ রোগী চিকিৎসা নিতে আসেন। সরকার স্বাস্থ্যসেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে প্রতিটি জেলায় ২৫০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণ করেছে। এ হাসপাতাল প্রাঙ্গণে রয়েছে আধুনিক ও মানসম্পন্ন আটতলা একটি ভবন। এর ওপর আরও দুইতলা বাড়ানোর কাজ চলছে। রোগীদের পাশাপাশি শ্রমিকরাও কাজ করার জন্য লিফটটি ব্যবহার করছিলেন। গত মাসের প্রথম দিকে হঠাৎ করেই লিফটটি বিকল হয়ে যায়। এরপর ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীদের সহায়তায় লিফটের দরজাটি কেটে ভেতরে আটকে থাকা শ্রমিকদের বের করা হয়। পরে আর সেটি আর সচল না করায় অনেক অসুস্থ রোগীরা বিপাকে পড়ছেন। ওই আটতলা ভবন জুড়েই রয়েছে করোনা ইউনিট, জরুরি ভর্তি, রোগীর শয্যা, চিকিৎসকদের চেম্বার, অপারেশন থিয়েটারসহ প্রয়োজনীয় সেবাদানের বিভিন্ন বিভাগ। এতে সবচেয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন প্রসূতি নারী, শিশু ও বৃদ্ধরা। চিকিৎসক ও নার্সদেরও ভোগাচ্ছে এ দুর্ভোগ।

হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, দু’টি লিফট থাকলেও চালু ছিল একটি। সেই চালু লিফটিও বন্ধ থাকায় কষ্ট করে সিঁড়ি দিয়ে ওঠানামা করতে হচ্ছে রোগী, তাদের স্বজন ও মেডিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্টদের। অনেক রোগীকে স্ট্রেচার বা কোলে করে নিতে হচ্ছে ওপরের তলাগুলোতে।

আল আমিন নামে এক ব্যক্তি জানান, তিনি তার অসুস্থ বাবাকে নিয়ে অপারেশন থিয়েটারে যাওয়ার জন্য এসে দেখেন লিফট নষ্ট। এরপর হুইল চেয়ারে করে অনেক কষ্টে চ্যাংদোলা করে সিঁড়ি বেয়ে ওপরে নিয়ে যেতে বাধ্য হন।

শিবগঞ্জ উপজেলা থেকে আসা এক রোগীর স্বজন জুয়েল জানান, বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য হাসপাতাল ভবনের বিভিন্ন তলায় রোগীকে নিয়ে যেতে হয়। দীর্ঘদিন ধরে হাসপাতালের লিফটটি নষ্ট হয়ে থাকায় অসুস্থ রোগীকে স্ট্রেচারে করে ওঠাতে নামাতে হচ্ছে। অনেক সময় রোগীদের ওঠানো নামানোর জন্য কোনো মেডিক্যাল স্টাফও এগিয়ে আসতে চান না।

এদিকে জেলা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. মাসুদ পারভেজ জানান, এ হাসপাতালের নয়-১০ তলার কাজ চলছে, এ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর লিফটের ঘর হওয়ার পর লিফট চালু করা সম্ভব হবে। এ কাজ দেখভাল করছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগ, তারাও চেষ্টা করছে, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব, এটি চালু করতে।

এ ব্যাপারে চাঁপাইনবাবগঞ্জ গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মহসিন জানান, নয় ও ১০তলার কাজ চলছে। পাশাপাশি লিফটও বাড়ানো হচ্ছে। এর ফলে সাময়িক সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। কষ্টের ব্যাপারটি বিবেচনায় নিয়ে গাইনি বিভাগসহ গুরুত্বপূর্ণ বিভাগ আপাতত একতলায় আনা হয়েছে।

শিগগিরই সব সমস্যা নিরসন করে রোগীদের হাসপাতালের সব সুযোগ-সুবিধা দেওয়া সম্ভব হবে বলে আশা করছেন জেলাবাসী।

Comments

comments

Close