আজ: ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি, দুপুর ১:৪৩
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, প্রধান সংবাদ, রাজনীতি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষ কে ১৪৪ ধারা দিয়ে আটকে রাখা যাবে না: রুমিন ফারহানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষ কে ১৪৪ ধারা দিয়ে আটকে রাখা যাবে না: রুমিন ফারহানা


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৮/০১/২০২২ , ৬:১৬ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,প্রধান সংবাদ,রাজনীতি


ই এম আসাদুজ্জামান আসাদ,ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি:

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ১৪৪ ধারা দিয়ে লাভ হবে না। ধারার সময় শেষ হয়ে গেছে। অন্যান্য জায়গার মতো ব্রাহ্মণবাড়িয়াতেও ধারা কাজ হয়নি। জোয়ার শুরু হলে বাঁধ দিয়ে রাখা যায় না।

আজ শনিবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথের বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি সাহসের সাথে আগামী দিনগুলোতে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, সরকার এখন আলোচনায় বসছে। এ আলোচনা ভোট চুরির প্রক্রিয়ার অংশ। তাই আমাদের সাহসের সাথে আগামী দিনে এগিয়ে যেতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষ কে ১৪৪ ধারা দিয়ে আটকে রাখা যাবে না। পুলিশ প্রশাসন সহ যারা আজ সমাবেশ করতে আমাদের জায়গায় জায়গায় বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করেছেন, তাদের আমরা চিনে রাখলাম ‘একে একে তাদের কাছে থেকে করায় গন্ডায় হিসাব নেয়া হবে’। ১৪৪ ধারা ভেঙে সমাবেশের এই গণজামায়াত’ই প্রমাণ করে এই ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকেই সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হলো।

পৌর এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি থাকায় সদর উপজেলার নাটাইয়ের বটতলী এলাকায় এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সদস্য মো. হাফিজুর রহমান মোল্লা। কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামলের সঞ্চালনায় এতে প্রধান বক্তা ছিলেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূঁইয়া।

এর আগে ১৪৪ ধারার মধ্যেই ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে ছাত্রদল। সংগঠনটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সমীর চক্রবর্তীর নেতৃত্বে বোর্ডিং মাঠ এলাকা থেকে মিছিলটি বের হয়। তবে কয়েক শ গজের মধ্যে মিছিলটি শেষ করে দেওয়া হয়। ঝটিকা এ মিছিলে ৩০-৪০ জন নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে ১৪৪ ধারা জারির কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে দূরপাল্লা ও অভ্যন্তরীণ রুটে যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে করে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। শনিবার সারাদিন শহরের পৈরতলা বাসস্ট্যান্ডে ও ভাদুঘর পৌর বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার কোনো বাস ছেড়ে যায়নি।

Comments

comments

Close