আজ: ৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, সন্ধ্যা ৭:৫৯
সর্বশেষ সংবাদ
বিজনেস সলুশন টাটা মটরস বাংলাদেশে নিয়ে এলো নতুন গোল্ড স্ট্যান্ডার্ড সম্পন্ন ১৬ টনের মাঝারি ধরনের বানিজ্যিক গাড়ি

টাটা মটরস বাংলাদেশে নিয়ে এলো নতুন গোল্ড স্ট্যান্ডার্ড সম্পন্ন ১৬ টনের মাঝারি ধরনের বানিজ্যিক গাড়ি


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৪/১১/২০২১ , ১১:৫৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: বিজনেস সলুশন


ঢাকা, নভেম্বর ২৩, ২০২১: টাটা মটরস এবং এর একমাত্র ডিস্ট্রিবিউটর নিটল মটরস বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এলো নতুন গোল্ড স্ট্যান্ডার্ড সম্পন্ন ১৬ টনের মাঝারি ধরনের বানিজ্যিক গাড়ি। এলপিটি ১৬১৫ গোল্ড দু’টি আলাদা হুইলবেস অপশনে পাওয়া যাবে – ৪৮০০মি.মি এবং ৫২০০মি.মি- শক্তিশালী ও নির্ভরযোগ্য যন্ত্রাংশে তৈরি LPT 1615 GOLD রকমারি পণ্য পরিবহনে ব্যবহার করা যাবে। এই গাড়ির এমন কিছু শক্তিশালী বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা ভারী ও অধিক পণ্য পরিবহনে ব্যবসায়ীদের জন্য হবে একটি আদর্শ ট্রাক। এলপিটি ১৬১৫ গোল্ড দেবে পাওয়ার প্যাকড পারফরম্যান্স এবং অধিক আয়ের সুযোগ, সাথে আছে নিরাপদ ও আরামদায়ক ড্রাইভিং এর অভিজ্ঞতা। তাছাড়া আমাদের রয়েছে দেশের সবচেয়ে বড় সেলস, সার্ভিস ও স্পেয়ার পার্টস নেটওয়ার্ক, যার সুবিধাগুলো নতুন এই ট্রাকের জন্য প্রযোজ্য থাকবে।
স্থানীয়ভাবে দেশের NITA (টাটা মটরস এবং নিটল মটরসের একটি যৌথ উদ্যোগ) প্ল্যান্টে এসেম্বল করা এলপিটি ১৬১৫ গোল্ড বাংলাদেশের উদীয়মান অর্থনীতির গতি বৃদ্ধি করবে। এই ট্রাকের গুরুত্বপূর্ণ কিছু বৈশিষ্ট্য যেমন- ১৪৫ হর্স পাওয়ার এবং ৫০০ এন.এম টর্ক এর কামিন্স 6BT ইঞ্জিন, দু’টি হুইলবেস অপশনের লেডার টাইপ (ladder-type) দৃঢ় চেসিস এটিকে পরিবহন ব্যবসার জন্য একটি উপযুক্ত গাড়িতে পরিনত করেছে। টাটা GBS 600 গিয়ারবক্স যুক্ত নির্ভরযোগ্য কামিন্স ইঞ্জিনের এলপিটি ১৬১৫ গোল্ড অধিক মুনাফা অর্জনের দরজা খুলে দেয় এবং কমিয়ে দেয় সার্বিক অপারেটিং খরচ। পাশাপাশি এই গাড়ির ফ্যাক্টরিতে সংযোজিত রেডিয়াল টায়ার, শক্তিশালী সাসপেনশন এবং রেয়ার এক্সেল (RA 110) বাংলাদেশের ড্রাইভিং কন্ডিশনের জন্য খুবই উপযোগী।
অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে জনাব অনুরাগ মেহেরোত্রা ( ভাইস প্রেসিডেন্ট, ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ও স্ট্র্যাটেজি, সিভিবিইউ, টাটা মটরস লিমিটেড) বলেন, বাংলাদেশের বাণিজ্যিক গাড়ির জগতে মার্কেট লিডার হিসেবে আমরা এদেশের ক্রেতাদের ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণে আমরা যুগোপযোগী পণ্য ও সেবা নিয়ে আসছি। অধিক শক্তির ফ্রেম,পরীক্ষিত কামিন্স ইঞ্জিন, উন্নত সাসপেনশন নিয়ে টাটা এলপিটি ১৬১৫ গোল্ড দেবে নির্ভরযোগ্য ও সন্তোষজনক পারফর্মেন্স এবং অধিক মুনাফা। এলপিটি ১৬১৫ গোল্ড এর বৈশিষ্ট্যগুলো এমনভাবে সমন্বয় করা হয়েছে, যাতে বেশি মুনাফা ও কম রক্ষণাবেক্ষণ খরচের বিষয়টি নিশ্চিত হয়। আমরা নিশ্চিত যে, বরাবরের মতই নিটল মটরস অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে তার সেলস, ফাইন্যান্স ও বিক্রয়োত্তর সেবার সুবিধাগুলো নতুন মডেলের এই গাড়ির জন্যও অব্যাহত রাখবে। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, এই সেগমেন্টের গ্রাহকরা নতুন টাটা এলপিটি ১৬১৫ গোল্ডকে পছন্দ করবেন, কারণ এটি তাদেরকে “গোল্ড ওনারশিপ” এর অভিজ্ঞতা প্রদান করবে এবং এটি টাটা মটরসের অধিক কার্যকরী ও নির্ভরযোগ্য পণ্যের মাধ্যমে গ্রাহক সন্তুষ্টি অর্জনের বিষয়টিকে নিশ্চিত করবে।
নিটল নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান জনাব আব্দুল মাতলুব আহমাদ বলেন, এখন পর্যন্ত আমাদের সাফল্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো দৈশিক অভিজ্ঞতার সাথে শক্তিশালী ডিলার নেটওয়ার্ক এর সংযোজন। এই নেটওয়ার্ক গড়ে উঠেছে ১৫১টি সেলস ও সার্ভিস সেন্টার এবং ৭০০ এর অধিক পার্টস আউটলেট নিয়ে, যাকে আরও বিস্তৃত করতে আমরা বদ্ধপরিকর। আমরা আত্নবিশ্বাসী যে,এলপিটি ১৬১৫ গোল্ড এদেশের মাঝারি ধরনের ট্রাকের জগতে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব এবং এটি হবে ১৬ টন ট্রাকের ক্ষেত্রে ক্রেতাদের সবচেয়ে পছন্দের গাড়ি।

টাটা মটরস১০৯ বিলিয়ন ডলারের টাটা গ্রুপের অংশ টাটা মটরস লিমিটেড, যেটি বর্তমানে ৩৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি প্রতিষ্ঠান এবং বিশ্বের অটোমোবাইল প্রস্তুতকারকদের মধ্যে প্রতিনিধিত্বকারী কোম্পানি, যা কার, ইউটিলিটি ভেহিক্যালস, পিকআপ, ট্রাক, এবং বাস তৈরি করে, পাশাপাশি প্রদান করছে বিভিন্ন ধরনের সমন্বিত, স্মার্ট ও ই- মোবিলিটি সল্যুশনস। “কানেক্টিং এসপিরেশন্স” এই প্রতিপাদ্যকে ব্রান্ড প্রমিসের মূল জায়গায় রেখেছে টাটা মটরস এবং এটি বর্তমানে ভারতের বাণিজ্যিক গাড়ির ক্ষেত্রে মার্কেট লিডার ও প্রাইভেট কারের ক্ষেত্রে প্রথম তিনের মধ্যে অবস্থান করছে।
১০৩টি সাবসিডিয়ারিস, ৯টি সহযোগী প্রতিষ্ঠান, ৪টি জয়েন্ট ভেঞ্চার এবং ২টি জয়েন্ট অপারেশনের সমন্বয়ে গঠিত একটি শক্তিশালী গ্লোবাল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে টাটা মটরস তার অপারেশন চালাচ্ছে ইন্ডিয়া, ইউকে, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড, সাউথ আফ্রিকা এবং ইন্দোনেশিয়ায়। টাটা মটরসের বাণিজ্যিক ও প্যাসেঞ্জার ভেহিক্যালগুলো বাজারজাত হচ্ছে আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য, দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আমেরিকা, রাশিয়া এবং অন্যান্য CIS দেশগুলোতে।

নিটল মটরস:
নিটল নিলয় গ্রুপের প্রধান অংগ সংস্থা হলো নিটল মটরস লিমিটেড, যা ১৯৮৮ সাল থেকে বাংলাদেশে টাটা মটরসের সহযোগী হিসেবে কাজ করে আসছে এবং সবচেয়ে বেশি মার্কেট শেয়ার নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি দেশের বানিজ্যিক গাড়ির জগতে প্রতিনিধিত্ব করে আসছে। একটি গতিশীল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে আশির দশকে যাত্রা শুরু করে নিটল মটরস। দেশের পরিবহন খাতের আমূল পরিবর্তনের প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করে টাটা মটরসকে সাথে নিয়ে নিটল মটরস শুরু করে এক সুদীর্ঘ যাত্রা।একটি প্রতিশ্রুতিশীল গ্রাহকসেবার কারণে নিটল মটরস আজ একটি সুপরিচিত নাম । মাত্র ২০ বছরেরও কম সময়ে সেবার উৎকর্ষ দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি অর্জন করে ক্রেতাদের অকৃত্রিম ভালোবাসা ও আস্থা। বর্তমানে বাংলাদেশে আমাদের রয়েছে সার্ভিস ও স্পেয়ার পার্টস এর সবচেয়ে শক্তিশালী নেটওয়ার্ক- যা গড়ে উঠেছে ৬৮টি সার্ভিস আউটলেট এবং সাতশো’র অধিক স্পেয়ার পার্টস আউটলেট নিয়ে। দেশের প্রতিটি কোনায় পৌঁছে দিয়েছি আমাদের বিক্রয়োত্তর সেবার পরিধি যা গ্রাহকদের দিচ্ছে নির্ভাবনায় পথ চলার অভিজ্ঞতা। দেশের মানুষের কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য নিটল মটরস টাটা মটরসকে সাথে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের মদনপুরে একটি মেকানিক ট্রেনিং স্কুল স্থাপন করেছে।
বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়ন এবং জাতীয় অর্থনীতিতে অনবদ্য অবদান রেখে চলেছে নিটল মটরস। জাতীয় রাজস্বখাতে অপরিসীম ভূমিকার কারণে ২০১৭ সালে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক মর্যাদাপূর্ণ কর বাহাদুর স্বীকৃতিতে ভূষিত হয় নিটল-নিলয় পরিবার।

 

Comments

comments

Close