আজ: ৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৯:১৭
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, রাজনীতি পৌর মেয়র আব্বাসকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার

পৌর মেয়র আব্বাসকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৪/১১/২০২১ , ৭:৫৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,রাজনীতি


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল নির্মাণ নিয়ে কটূক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্যের ঘটনায় রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীকে পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়কের দলীয় পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের জরুরি বৈঠকে মেয়র আব্বাসকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়। পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাজদার রহমান সরকার বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জরুরি বৈঠকে মেয়র আব্বাস আলীকে কাটাখালী পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। একইসঙ্গে কেন দলীয় সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়ারও সিদ্ধান্ত হয়।

মাজদার রহমান আরও বলেন, ‘বৈঠক শেষে কাটাখালী আহ্বায়কের পদ থেকে বহিষ্কার করে তিনদিনের মধ্যে জবাব দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে আব্বাসের নামে কারণ দর্শানোর নোটিশও ইস্যু করা হয়েছে। জবাব পাওয়ার পর তাকে স্থায়ী বহিষ্কারের জন্য দলের কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ পাঠানো হবে।

এদিকে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নির্মাণ নিয়ে কটূক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্যের প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠছে রাজশাহী। বক্তব্য প্রদানকারী কাটাখালি পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীকে আওয়ামী লীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার ও গ্রেফতারের দাবিতে বুধবার বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে দলটির তৃণমূলের নেতা-কর্মী ও বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

এদিন সকাল ১০টায় নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আয়োজনে মানববন্ধন থেকে মেয়র আব্বাস আলীকে দল থেকে দ্রুত বহিষ্কারসহ তাকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

অন্যদিকে মেয়র আব্বাসকে দল থেকে বহিষ্কার ও দ্রুত গ্রেফতার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ করেছে কাটাখালী পৌর আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। বুধবার বেলা ১১টার দিকে কাটাখালি বাজারে জড়ো হয়ে সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে পৌর এলাকা প্রদক্ষিণ করে। মিছিল শেষে সেখানে সমাবেশ করে হয়।

প্রসঙ্গত, মেয়র আব্বাস একটি ঘোরায়া বৈঠকে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়কের কাটাখালী পৌরসভার অংশের উন্নয়নকাজ নিয়ে কথা বলার সময় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্য দেন। এসময় বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যাল নির্মাণ প্রতিহতের ঘোষণাও দেন তিনি। এ নিয়ে তার ফাঁস হওয়া একটি অডিও গত রবিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পাড়ে।

অপরদিকে, গত মঙ্গলবার রাতে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্যের অভিযোগে মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে বোয়ালিয়া, রাজপাড়া ও চন্দ্রিমা থানায় পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের তিনটি এজাহার সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ গ্রহণ করে মামলার প্রস্তুতিতে রেখেছেন বলে জানিয়েছেন।

কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী নৌকা প্রতীক নিয়ে দুইবার মেয়র নির্বাচিত হন। তিনি পৌরসভা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক এবং জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। তবে মেয়র আব্বাস তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ অস্বীকার করে পুরো বিষয়টি ষড়যন্ত্র বলে দাবি করেছেন।

Comments

comments

Close