আজ: ৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৮:১১
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, প্রধান সংবাদ সরকারের ৩৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি করে রাজশাহী গণপূর্ত-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলীর নজিরবিহীন দূর্নীতি

সরকারের ৩৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি করে রাজশাহী গণপূর্ত-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলীর নজিরবিহীন দূর্নীতি


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১৫/১১/২০২১ , ৬:৪২ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,প্রধান সংবাদ


 

নিজস্ব প্রতিবেদক : কোভিড-১৯ এর সংকটময় পরিস্থিতি কাটিয়ে সরকার স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নের জন্য প্রকল্প বাস্তবায়নে উদ্যোগ নিয়েছে।  হাসপাতাল গুলো যুগোপযোগী করে তোলার জন্য বিপুল পরিমান অর্থ দিয়ে চলেছে মন্ত্রণালয় । এরই পরিপ্রেক্ষিতে রাজশাহী বক্ষব্যাধী হাসপাতাল আধুনিকায়নের জন্য দুই কোটি পঞ্চাশ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কাজ বাস্তবায়নের দায়িত্ব স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়  হতে গণপূর্ত  অধিদপ্তরকে দেয়া হয়। রাজশাহী গণপূর্ত বিভাগ-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান ৬/১০/২০২১ তারিখে দরপত্রটি আহবান করেন । দরপত্রে অংশগ্রহনের শর্তাবলীতে উদ্ভট একটি শর্ত জুড়ে দেন। যা প্রচলিত নিয়ম  বহির্ভূত । যাতে করে তিনি তার পছন্দের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতে পারেন । শর্তটিতে দেখা যায়, সিমিলার কাজের ক্ষেত্রে পূর্বে সম্পাদিত হয়েছে এমন সনদপত্রে বলা হয়েছে রিপিয়ারিং এর সাথে সাবষ্টেশনের কাজ থাকতে হবে, যা গতানুগতিক নিয়মের বাইরে। উক্ত শর্ত মেনে তিনটি প্রতিষ্ঠান দরপত্রে অংশগ্রহন করে। এরপরও পছন্দের প্রতিষ্ঠানকে নিয়মমাফিক  কাজ দিতে না পেরে নিয়মবহির্ভূতভাবে প্রথম নিম্ন  দরপত্র দানকারী প্রতিষ্ঠান মিম ডেভলপমেন্ট ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডকে বাদ দিয়ে এবং একইভাবে দ্বিতীয় নিম্ন  দরপত্র প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানকে বাদ দিয়ে সর্বোচ্চ দর প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স ব্রাদার্স কনস্ট্রাকশনকে সরকারের ৩৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি করে কাজটি পাইয়ে দেয়ার চেষ্টা স্বরূপ বাকী দুটি প্রতিষ্ঠানকে  অমূল্যায়িত করেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান  , এই ৩৫ লক্ষ টাকা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও রাজশাহী গণপূর্ত-২ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর  সাথে ভাগাভাগির কথা রয়েছে। এছাড়াও অনুসন্ধানে দেখা যায়,  উক্ত কাজের প্রাক্কলন গণপূর্ত শিডিউল রেট-২০১৮ অনুযায়ী যা হওয়ার কথা থাকলেও  তার থেকে ১০ লক্ষ টাকা বাড়িয়ে  রাখা হয়েছে । সামগ্রিক নথিপত্র ইতিমধ্যে প্রতিবেদকের হাতে এসেছে।

সরকারের ৩৫ লক্ষ টাকা ক্ষতির ব্যাপারে নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ব্যাপারটি এড়িয়ে যান এবং শর্তের ব্যাপারে তিনি বলেন , রিপেয়ার , মেইন্টেইনেন্স ও রেনুভেশন সমার্থক হিসেবে ব্যবহৃত হয় । দরপত্র মুল্যায়নের প্রসঙ্গে তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কথা বলে দ্বায় এড়িয়ে যান ।

Comments

comments

Close