আজ: ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, বিকাল ৫:৪৪
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, জেলা সংবাদ, প্রধান সংবাদ, রংপুর বিভাগ তেল ও চিনির দাম বাড়ার কারণ জানালেন বাণিজ্যমন্ত্রী

তেল ও চিনির দাম বাড়ার কারণ জানালেন বাণিজ্যমন্ত্রী


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১৮/০৯/২০২১ , ১০:২০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,জেলা সংবাদ,প্রধান সংবাদ,রংপুর বিভাগ


বর্ণালী জামান বর্ণা:

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশে সয়াবিন তেল ও চিনির দাম বেড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

তবে বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, প্রশাসন ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নিয়মিত বাজার মনিটরিং করছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রংপুর টাউন হলে রংপুর জেলা প্রশাসন ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উদ্যোগে রংপুর নগরীর বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিকথা নিয়ে রচিত স্মৃতিতে রণাঙ্গন গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের  এসব কথা বলেন তিনি।

একাত্তরের সম্মুখযুদ্ধে পরাজিতরা বাংলাকে পাকিস্তান করার স্বপ্নে বিভোর হয়ে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছেন দাবি করে টিপু মুনশি বলেন, ১৫ আগস্টের পর ‌‌জয়বাংলার পরিবর্তে বাংলাদেশ জিন্দাবাদ স্লোগানে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার উপর আঘাত করলেন স্বাধীনতা বিরোধীরা। যে স্লোগান দিয়ে আমরা মুক্তিযোদ্ধারা যুদ্ধ করলাম। পনেরো আগস্ট মুহূর্তের মধ্যে সেই জয়বাংলা স্লোগান হয়ে গেল বাংলাদেশ জিন্দাবাদ। এটা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনার উপর করা প্রথম আঘাত।

তিনি বলেছেন, বিএনপি কোনো অবস্থাতেই মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের নন। তারা মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে কথা বলে না। তারা ঢালাও ভাবে শুধু সরকারের বাজেটের বিরোধিতা করে। শেখ হাসিনার সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের কষ্ট লাঘবে সম্মানি ২০ হাজার টাকা করে দিয়েছে। এটা নিয়ে তো মুক্তিযোদ্ধার দল দাবিদার বিএনপি কোনো কথা বলেনি। তারা মুখে তাদের নেতাকে মুক্তিযোদ্ধা দাবি করলেও মনের ভিতরে তা ধারণ করে না।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে পাকিস্তান প্রীতিকে জাগিয়ে রেখে বাংলাদেশকে ২১ বছর পিছনে ফেলে রাখা হয়েছিল। কিন্তু সেই বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার হাত ধরেই বাংলাদেশ উন্নয়নে বিশ্বের মডেল। পাকিস্তান এখন বাংলাদেশের চেয়ে সব সূচকে পিছনে পড়ে গেছে। আমাদের রিজার্ভ যখন ৪৮ মিলিয়ন ডলার, পাকিস্তানে তখন অর্ধেক। প্রতিটা ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে।

মুক্তিযুদ্ধের প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের স্মৃতিচারণ করে বাণিজ্য মন্ত্রী বলেন, একজন মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে একেকটি ইতিহাসের সাক্ষীর মৃত্যু ঘটছে। তাই স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস পরবর্তী প্রজন্মকে জানাতে হবে। বঙ্গবন্ধুর লেখা কারাগারের রোজনামচা, অসমাপ্ত আত্মজীবনীসহ তাকে নিয়ে লেখা যত বই আছে নতুন প্রজন্মসহ সকলকে তা পড়তে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ভারত থেকে আমদানী ও রফতানি বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ভারতে মাছ রফতানি করার পরিকল্পনা গ্রহণের কথাও জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

এর আগে জেলা প্রশাসক আসিব আহসানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও স্মৃতিতে রণাঙ্গন গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোসাদ্দেক হোসেন বাবলু, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আব্দুল আলীম মাহমুদ, জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

 

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: