আজ: ২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি, সকাল ৭:১৭
সর্বশেষ সংবাদ
খেলাধূলা দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানকে হারিয়ে সিরিজে সমতায় ফিরলো ইংল্যান্ড

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানকে হারিয়ে সিরিজে সমতায় ফিরলো ইংল্যান্ড


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ অনলাইন | প্রকাশিত হয়েছে: ১৯/০৭/২০২১ , ১২:১৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: খেলাধূলা


শামসুল আলম সবুজ

ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশের পর প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল পাকিস্তান। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে এসেই মুখ থুবড়ে পড়েছে বাবর আজমের দল। ফলে দাপুটে এক জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। আর এ জয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজে সমতায় ফিরেছেন বাটলাররা।

প্রথম ম্যাচে দুইশত পেরোনো পাকিস্তান এ ম্যাচে ব্যাট হাতে সুবিধা করতে পারেনি। ২০১ রান তাড়া করতে নেমে ১৫৫ রানেই গুটিয়ে যায় পাকিস্তানের ইনিংস। ৪৫ রানের সহজ জয়ে ১-১ এ সমতায় ফেরে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

ব্যাট করতে নামা ইংলিশরা নির্ধারিত ওভারের এক বল বাকি থাকতেই অলআউট হয়ে যায়। কিন্তু তাতেই কাজের কাজ করে ফেলেন বাটলাররা। জেসন রয় ও ডেভিড মালান শুরুতে ফিরে গেলেও রানের চাকা সচল রাখার দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন জস বাটলার এবং মইন আলী। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৯ রান করেন বাটলার। সাত চার আর দুই ছয়ে ৩৯ বলে ইনিংসটি সাজিয়েছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক।

অপরদিকে, ঝড়ো খেলতে থাকেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান মইন আলী। ১৬ বলে ৩৬ রান করেন তিনি। এ রান তুলতে বাউন্ডারি মেরেছেন ৬ টি এবং ছক্কা মেরেছেন একটি। গত ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান লিয়াম লিভিংস্টোন আজকেও ব্যাট হাতে দানবীয় ইনিংস খেলেছেন। ৩ ছক্কা ও ২ বাউন্ডারিতে ৩৮ রান করেন তিনি। এছাড়া জনি বেয়ারস্টো ১৩ এবং ক্রিস জর্ডান ১৪ করলে দুইশত রানের কোটা পূরণ করে ইংল্যান্ড। মুহাম্মদ হাসনাইন ৩ টি, ইমাদ ওয়াসিম ও হারিস রউফ ২ টি করে উইকেট নিয়েছেন।

টার্গেটে খেলতে নেমে দুই ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান এবং বাবর আজমের ব্যাট জয়ের পথেই রেখেছিল পাকিস্তানকে। তাঁদের ওপেনিং জুটিতে ৫০ রান করে সফরকারীরা। সেখান থেকে ৭১ রানে ১ উইকেট হারিয়ে ফেলে পাকিস্তান। এরপর হঠাৎই ২ উইকেট খুইয়ে চাপে পড়ে যায় দলটি। পরপর আউট হয়ে যান দুই সেট ব্যাটসম্যান মাকসুদ ও রিজওয়ান।

শোয়েব মাকসুদের সংগ্রহ ১৫ রান। আর পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। ৩৭ রান আসে এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে। অভিজ্ঞ মোহাম্মদ হাফিজ ১০ রান করে ফিরে গেলে বড় পরাজয় তখন চোখ রাঙ্গাচ্ছিল পাকিস্তানকে। কিন্তু ইমাদ ওয়াসিম ও শাদাব খান দলকে বড় পরাজয়ের শঙ্কা থেকে মুক্ত করেন।

অলরাউন্ডার ইমাদ ওয়াসিম করেছেন ১৫ রান। আরেক অলরাউন্ডার শাদাব খান ২২ বলে ৩৬ রানের মারকুটে এক ইনিংস খেলেন। যেখানে দুইটি চার ও তিনটি ছয়ের মার ছিল। শেষমেশ অন্য কোনো ব্যাটসম্যানের কাছ থেকে সহযোগিতা না পাওয়ায় অপরাজিত থেকে পরাজয়ের গ্লানি নিয়ে মাঠ ছাড়েন শাদাব। ইংল্যান্ডের হয়ে সাকিব মাহমুদ ৩ টি, আদিল রশিদ এবং মইন আলী ২ টি করে উইকেট নিয়েছেন।

ব্যাট ও বল হাতে আলো ছড়ানো ইংলিশ অলরাউন্ডার মইন আলী ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতে নিয়েছেন।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: