আজ: ২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি, সকাল ৮:২০
সর্বশেষ সংবাদ
ফেসবুক থেকে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক উদ্যোগকে উদ্দেশ্যমূলক ভাবে ব্যর্থ প্রমাণিত করার মিশনে জামাত বিএনপি’র কর্মকর্তারা!

প্রধানমন্ত্রীর মানবিক উদ্যোগকে উদ্দেশ্যমূলক ভাবে ব্যর্থ প্রমাণিত করার মিশনে জামাত বিএনপি’র কর্মকর্তারা!


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ অনলাইন | প্রকাশিত হয়েছে: ০৯/০৭/২০২১ , ১১:৪২ অপরাহ্ণ | বিভাগ: ফেসবুক থেকে


প্রধানমন্ত্রীর মানবিক উদ্যোগকে উদ্দেশ্যমূলক ভাবে ব্যর্থ প্রমাণিত করার মিশনে জামাত বিএনপি’র কর্মকর্তা! এদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়ার সময় এখনই। অতীতের যেকোন সময়ের তুলনায় দেশ এগিয়ে গেছে এবং এগিয়ে যাচ্ছে শুধুমাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনা’র অদম্য মনোবল আর অক্লান্ত পরিশ্রমেই। জাতীয় ও অঞ্চল ভিত্তিক উন্নয়ন সহ জনগণের জীবনমান এখন অনেক উন্নত।। কিন্তু তিক্ততার সাথে বলতে হচ্ছে কিছু কারণে জনমনে নেতিবাচক প্রভাব এই সরকারের প্রতি দিনে দিনে চরম আকার ধারণ করছে। এর প্রধান অন্তরায় জামাত বিএনপি’ পন্থী  কিছু আমলা ও পুলিশ প্রশাসন এবং দলের ভিতরে ঢুকে যাওয়া অসামান্য দুষ্কৃতকারী। সাথে রয়েছে কিছু চেতনা ব্যবসায়ীগণ।। সরকারের  এতো এতো প্রকল্প ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ড, সরকারের সকল সেক্টরে এতো সফলতা।অথচ ম্লান হচ্ছে দুর্বৃত্ত আমলা,প্রশাসনের অসাধু  এবং লোভী শ্রেণীর দুষ্কৃতকারীদের জন্য। পুলিশ অপরাধের শাস্তি দেওয়ার ক্ষমতা না রাখলেও কিছু পুলিশ সদস্য মামলায় শাস্তির ভয় দেখিয়ে হয়রানি করছে অনৈতিক উৎকোচ গ্রহনের জন্য। কিছু আমলা উপকার ভোগীদের সরকারি সুবিধা দিতে নিচ্ছেন অনৈতিক উৎকোচ ।। আবার উন্নয়ন প্রকল্পগুলো নিম্নমানে ঠেলে দিয়ে কিছু দুর্নীতিবাজ গিলছে কাড়িকাড়ি অর্থ। পলিটিক্যাল নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন কারণে জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে,কিংবা রাখা হচ্ছে। যার ফলশ্রুতিতে আমলাগনই এখন জনগনের সামনে আয়োজনের মঞ্চে প্রধান বক্তা ও অতিথি।সরকারের প্রনোদনা উপহার,ত্রাণ সহ সকল সুবিধা তারাই দিচ্ছেন।  যেন ওনারাই জনগনের নিকট ভোট চাইবে। দলছুট ও সুবিধাবাদী নামধারী কিছু নেতা অথবা আমরা হাইব্রিড হিসেবে যাদের আখ্যায়িত করি তারাই সেই আমলাদের ফুল দিয়ে নেতার আসনে বসাচ্ছেন।। ইতোমধ্যে দলের ভিতরে অনেকভাবে সুবিধা ভোগী হাইব্রিড নেতাদের আবির্ভাব ঘটেছে। অন্যদিকে জনসচেতন ও মার্জিত ভদ্র রাজনৈতিক নেতাদেরকে কোনঠাসা করে রাখছেন বিশেষ সিন্ডিকেট ।।যদিও দলের অভ্যন্তরিন বিষয়গুলোতে নানাবিধ কারণ রয়েছে, সেদিকে যাবো না তবে সেগুলো পজেটিভলি পরিবর্তন দরকার।। যদিও পরিবর্তন হচ্ছে তবুও শতভাগ পরিবর্তন প্রয়োজন বলে মনে করছি। প্রকৃত জনগণের নেতাদের হাতে নেতৃত্ব তুলে দেওয়া জরুরি বলে মনে করছি। অমসৃণ পথে চলমান রাজনীতির গতিধারা সঠিক পথে ফেরাতে এখনই ভাবা উচিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সকল নেতৃবৃন্দের।বঙ্গবন্ধু কন্যার উপর সব চাপ আর সকল দায়িত্ব দিয়ে বসে থাকলে তিনি নিশ্চয় স্বস্তিতে থাকবেন না।তিনি দেশ ও দলকে একা হাতে এ পর্যন্ত যতদূর নিয়ে এসেছেন এটি আমাদের জন্য পরম সৌভাগ্যের।তিনি আর কত করবেন,কত আর চাপ নিতে হবে প্রাণের নেত্রীকে! সুতরাং বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ও জননেত্রী শেখ হাসিনা’র স্বপ্নের  উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার অদম্য উচ্ছাস ও পরিশ্রমকে ম্লান থেকে পরিত্রাণ খুঁজে  পেতে সমাধানের জন্য আপনাদের প্রতি জোড় আহবান রইলো।

লিখেছেন: মোঃ মিজানুর রহমান তুহিন

তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক , বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ,রংপুর জেলা শাখা।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: