আজ: ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৬ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ২:২৩
সর্বশেষ সংবাদ
আন্তর্জাতিক তুরস্ক চুপ করে থাকবে না, ইসরায়েলকে এরদোগান

তুরস্ক চুপ করে থাকবে না, ইসরায়েলকে এরদোগান


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ অনলাইন | প্রকাশিত হয়েছে: ১৪/০৫/২০২১ , ৮:৫০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: আন্তর্জাতিক


ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের চলমান হামলার সংঘাতের পঞ্চম দিনে এসে গাজায় হামলা জোরদার করেছে ইসরায়েল। শুক্রবার গাজায় হামলায় স্থল ও বিমান বাহিনী অংশ নিয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। ফিলিস্তিনের গাজায় চল্লিশ মিনিটে সাড়ে ৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে দেশটির সামরিক বাহিনী। গত সোমবার থেকে ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরায়েলের অব্যাহত বোমা হামলায় ১১৯ জন মারা গেছে। আহত হয়েছে ৮০০ এর অধিক মানুষ। এছাড়া গাজার অন্তত ৩১টি স্কুল ও একটি স্বাস্থ্য সেবাকেন্দ্র গুঁড়িয়ে দিয়েছে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী। এসব ঘটনায় ক্ষুব্ধ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।
তিনি বলেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি নিপীড়নে তুরস্ক চুপ থাকবে না।

আজ শুক্রবার এক অনলাইন ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।
তিনি বলেন, গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বিমান হামলায় তিনি ‘ক্ষুব্ধ’। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে তিনি এ ঘটনার শান্তিপূর্ণ সমাধানে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।
তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ইসরায়েলের আচরণে আমরা শোকাহত ও ক্ষুব্ধ। ফিলিস্তিনের শহরগুলোতে ইসরায়েলের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ও মানবতার সম্মান রক্ষার জন্য জেরুজালেমের পাশে দাঁড়ানো কর্তব্য।
এরদোয়ান আরও বলেন, যারা চুপ করে থেকে অথবা প্রকাশ্যে ইসরায়েলের রক্তপাতকে সমর্থন করে, জেনে রাখা উচিত এক দিন তাদেরও এমন দিন আসবে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের কর্তব্য জেরেুজালেমে শান্তি ফিরিয়ে আনার বিষয়টি নিশ্চিত করা।
তিনি বলেন, যদি গোটা পৃথিবীও ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের নিপীড়নকে এড়িয়ে যায়, তবু তুরস্ক চুপ করে থাকবে না।
ইসরায়েল বাহিনীর পবিত্র আল আকসা মসজিদকে অবরুদ্ধ করে রাখাকে কেন্দ্র করে ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ করেছিল ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস। তারই জের ধরে গত সোমবার থেকে ফিলিস্তিনের গাজার বোমা হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েল। আজ শুক্রবার বোমা হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েল। দেশটির প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বলেছেন, ইসরায়েল রাষ্ট্রের শান্তি বজায় রাখার স্বার্থে এ হামলার প্রয়োজন রয়েছে।
আল-আকসা মসজিদ মুসলমানদের জন্য বিশ্বের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান। তবে ইহুদিরা জায়গাটিকে তাদের নিজেদের উপাসনালয় হিসেবে দাবি করে। ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরায়েলের যুদ্ধের সময় পূর্ব জেরুজালেম দখল করে ইসরায়েল। এরপর ১৯৮০ সালে পুরো জেরুজালেম তাদের নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। যা এখনও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় থেকে স্বীকৃতি পায়নি।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: