আজ: ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি, বিকাল ৩:৩৮
সর্বশেষ সংবাদ
আবহাওয়া, জেলা সংবাদ শ্রীমঙ্গলে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস

শ্রীমঙ্গলে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৯/১২/২০২০ , ১:৪৬ অপরাহ্ণ | বিভাগ: আবহাওয়া,জেলা সংবাদ


শীত জেঁকে বসেছে শ্রীমঙ্গলে। আজ শ্রীমঙ্গলে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত ২০ ডিসেম্বরও শ্রীমঙ্গলে সর্বনি¤œ তাপমাত্রা ছিল ৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের আবহাওয়া সহকারি মো. জাহেদুল ইসলাম মাসুম জানান, আজ সকাল ৯টায় শ্রীমঙ্গলে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
তাপমাত্রা নেমে যাবার সাথে সাথে বদলে যাচ্ছে এখানকার প্রকৃতির রুপ। কুয়াশায় ঢাকা চা-বাগানগুলো সকাল-সন্ধ্যা পাচ্ছে মায়াবী রুপ। এলাকার জলাশয়গুলো মুখর শীতের পাখির কলতানে। শীত বাড়ার সাথে সাথে বিচিত্র হতে শুরু করেছে প্রকৃতি। চা-বাগানের সারি সারি ছায়াগাছগুলো সকাল-সন্ধ্যা ঢাকা পড়ছে কুয়াশার চাদরে।
শ্রীমঙ্গলের প্রসিদ্ধ পাখির অভয়ারণ্য বাইক্কা বিলসহ হাওর, বিল, জলাশয় ও চা-বাগান লেকগুলোতে আসতে শুরু করেছে অতিথি পাখি। তাদের কলতানে মুখরিত পুরো এলাকা। প্রকৃতির এই রুপের সুধা পান করতে পর্যটক দর্শনার্থীদের ভিড়ও বাড়তে শুরু করেছে বাইক্কা বিল, হাইল-হাওরসহ সবুজ চা-বাগানগুলোয়।
হাইল-হাওরের বড় গাঙিনা সম্পদ ব্যবস্হাপনা সংগঠনের সভাপতি মো. আব্দুস সোবহান চৌধুরী জানান, বাইক্কা বিলে এবার উল্লেখযোগ্যভাবে পাখির আগমন শুরু হয়ে গেছে। পাখির কল-কাকলীতে বাইক্কা বিল মুখর হয়ে ওঠেছে। তিনি বলেন, শীত যত বাড়বে পাখির আগমন তত বাড়বে। গত মৌসুমের তুলনায় এবার শীতের পাখির সংখ্যা আরো বাড়বে বলেও জানিয়েছেন সোবহান চৌধুরী।
আব্দুস সোবহান চৌধুরী আরো জানান, সম্প্রতি বাইক্কা বিলে যাবার ভাঙাচুড়া রাস্তাটি পাকা হয়ে যাওয়ায় পর্যটক, দর্শনার্থীদের আগমন বাড়ছে। বাইক্কা বিলের অপার সৌন্দর্য, জলজ সম্পদ আর অতিথি পাখির জলকেলী, উড়াউড়ি ও কিচির-মিচিরে মুখরিত অপরুপ বাইক্কা বিলের সৌন্দর্য দেখতে এবার দর্শনার্থীদের উল্লেখযোগ্যহারে সমাগম ঘটবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
এদিকে শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আছাদুজ্জামান জানান, শ্রীমঙ্গল উপজেলার ৯ ইউনিয়ন ও চা-বাগানগুলোতে দুই দফায় ৫ হাজার ৬০০ কম্বল দরিদ্র ও শীতার্ত মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই উপজেলায় আরো শীতবস্ত্র ও কম্বল শীতার্তদের মাঝে বিতরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: