আজ: ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি, বিকাল ৪:২৭
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, রাজনীতি প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে আওয়ামী লীগের আনন্দ মিছিল

প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে আওয়ামী লীগের আনন্দ মিছিল


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২১/১১/২০২০ , ৬:৫০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,রাজনীতি


দেখার হাওরপাড়ে সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় বিল জাতীয় সংসদে পাস হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে সুনামগঞ্জে আনন্দ মিছিল করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। আজ শনিবার বিকালে জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শহরের হুসেন বখত চত্বর থেকে আনন্দ মিছিলটি বের হয়। শহর প্রদক্ষিণ করে ট্রাফিক পয়েন্টে এসে মিছিলটি শেষ হয়। এর আগে হুসেন বখত চত্বরে আয়োজিত সমাবেশে বক্তৃতা করেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতারা।
সভাপতির বক্তৃতায় সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ মতিউর রহমান বলেন, হাওরাঞ্চলের শিক্ষার উন্নয়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা একটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় উপহার দেওয়ায় জেলাবাসী আজ উচ্ছ্বসিত। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে পিছিয়ে পড়া হাওরে শিক্ষার আলো জ¦লে ওঠবে। তিনি বলেন, এই বিশ^বিদ্যালয়ের স্থান নিয়ে একটি জটিলতা সৃষ্টি হয়েছিল।
জেলা আওয়ামী লীগ স্থান নির্বাচন করে রেজুলেশনের মাধ্যমে আমাদের সংসদ সদস্যগণের হাতে দিয়েছিল। সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের নেতৃত্বে সেটি সংসদে উত্থাপিত হওয়ার পর বিলে স্থান সংক্রান্ত সংশোধনী আসায় একটি জটিলতার অবসান হয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানটি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের উপহার দিয়েছেন, এ জন্য আমরা সুনামগঞ্জবাসী তাঁকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুহিবুর রহমান মানিক বলেন, আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর, প্রতি এ কারণে কৃতজ্ঞ যে, তিনি অবহেলি হাওরবাসীর প্রতি সবসময় মমতাভরা দৃষ্টি রাখেন।
তিনি বিশ^াস করেন গোপালগঞ্জের উন্নয়ন হলে সুনামগঞ্জেরও উন্নয়ন হবে। তাই বিশ^বিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ, টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট-সহ শিক্ষার উন্নয়নের অনেকগুলো বড় প্রকল্প আমাদের উপহার দিয়েছেন। তাঁর কল্যাণে আগামীতে আর আমরা পিছিয়ে থাকব না। মানিক বলেন, বিশ^বিদ্যালয়ের স্থান নিয়ে যে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছিল জেলা আওয়ামী লীগের সহযোগিতায় আমরা জনপ্রতিনিধিরা সংসদের সংশোধনী প্রস্তাব এনে দেখার হাওরের পাড়ে স্থাপনের ধারা সংযোজন করেছি।
এই হাওরটি চারটি উপজেলাজুড়ে বিস্তৃত। আমরা সবাই আলোচনা করে সবার জন্য সুবিধাজনক একটি স্থানে বিশ^বিদ্যালয়টি স্থাপন করতে চাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আফতাব উদ্দিন, অ্যাডভোকেট শফিকুল আলম, জেলা ছাত্রীলগের সাবেক সভাপতি অ্যাভোকেট আক্তারুজ্জামান সেলিম প্রমুখ।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: