আজ: ১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, সকাল ১১:৫৫
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ ৬ মাসেও আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত যাত্রী ছাউনি সংস্কার হয়নি

৬ মাসেও আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত যাত্রী ছাউনি সংস্কার হয়নি


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১৬/১১/২০২০ , ৮:২৫ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


ছয় মাস আগে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে আছে যশোরের শার্শা উপজেলার নাভারণ রেলস্টেশনের যাত্রী ছাউনিটি। করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতাকে কিছুটা জয় করে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলে আংশিক গতি ফিরলেও ক্ষতিগ্রস্ত যাত্রী ছাউনিটি এখনো মেরামত করা হয়নি। ফলে সংস্কার না হওয়ায় রেলে চলাচলকারী যাত্রী সাধারণের দুর্ভোগ চরমে উঠেছে। প্রায় ছয় মাস সময় অতিবাহিত হলেও ক্ষতিগ্রস্ত রেলের যাত্রী ছাউনি অরক্ষিত অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে। নজরদারি থাকলেও সংস্কারে কর্তৃপক্ষের রয়েছে কিছুটা উদাসীনতা।

স্থানীয়রা জানান, চলতি বছরের ২০ মে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ভয়াবহ প্রভাবে যাত্রী ছাউনির সামনে এবং পেছন অংশের টিন উল্টে পড়ে আছে। করোনাকালীন লকডাউন থাকায় মানুষের কর্মজীবন থমকে যায়। দীর্ঘদিন কাজ এবং রেল চলাচলের বিরতি কাটিয়ে সব কিছু স্বাভাবিক হলেও যাত্রী ছাউনিটি সংস্কার করা হচ্ছে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নাভারন রেলস্টেশনের একজন বুকিংম্যান বলেন, বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের আগে নাভারণ রেলস্টেশন থেকে প্রতিমাসে টিকিট বিক্রি করে রেল কর্তৃপক্ষ আয় করত প্রায় পৌনে দুই লাখ টাকার মতো। অথচ আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত যাত্রী ছাউনিটি সংস্কারের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হলেও কারো কোনো নজর নেই।

রেলওয়ের কর্মকর্তা চাঁদ আহমেদ বলেন, ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে নাভারণ রেলস্টেশনের যাত্রী ছাউনির সামনে এবং পেছন অংশের টিন উল্টে পড়ে আছে। রেলওয়ের পশ্চিম অঞ্চল কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর সরেজমিনে পরিদর্শন করেছেন। করোনা পরিস্থিতিতে একটু বিলম্ব হয়েছে। দ্রুত সংস্কার করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন। আশা করছি খুব শিগগিরই কাজ শুরু হবে এবং রেলে চলাচলকারী যাত্রী সাধারণের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: