আজ: ১২ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১১:৫২
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ তিতাসে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫

তিতাসে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫


পোস্ট করেছেন: অনলাইন ডেক্স | প্রকাশিত হয়েছে: ১৬/১১/২০২০ , ১:৪৫ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় যুবলীগের দুই নেতার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উভয় গ্রুপের ৫ জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করেছেন। রাতেই তিতাস থানা পুলিশ, মোশারফ হোসেন নামের একজনকে আটক করেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার বিকালে তিতাস উপজেলার সাতানী ইউনিয়নে কৃষ্ণপুর গ্রামের জুই¹া মার্কেটের মুছা মিয়ার চায়ের দোকানে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ওই ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি মো. লিটন গ্রুপ ও সহ-সভাপতি মুক্তার হোসেন গ্রুপের মধ্যে এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে।
তারই জের ধারে রবিবার বিকালে লিটন গ্রুপের শহিদুল ইসলাম ও মুক্তার গ্রুপের প্রধান মুক্তার উভয়ে প্রথমে তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পরলে এ সময় উপস্থিত উভয় গ্রুপের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে এবং ৫জন আহত হয়। আহতরা হলো লিটন গ্রুপের শহিদুল ইসলাম। মুক্তার গ্রুপের মুক্তার, রহমান, ইউনুছ ও বাসুরা বেগম।
এ বিষয়ে লিটন সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের ওয়ার্ড মেম্বার মুন্নাফ মিয়াকে (৬৫) মুক্তার গালমন্দ করছে বলে শহিদুল ইসলাম শুনতে পেয়ে, কি কারণে গালমন্দ করেছে জানতে চায় মুক্তারের নিকট। এ সময় মুক্তার তার সাথে থাকা ছুরি দিয়ে শহিদুলকে ছুরিকাঘাত করতে চাইলে দুইজনের মধ্যে হাতাহাতি হয় এ সময় শহিদুল ও মুক্তার আহত হয়।
এদিকে আহত মুক্তার বলেন, বিকাল ৫টায় আমি মুছা মিয়ার চায়ের দোকানে বসা ছিলাম এ সময় লিটন, শহিদুলসহ ২০/৩০ জন আমার ওপর অতর্কিত হামলা করেছে।
এ বিষয়ে তিতাস থানার ওসি সৈয়দ মোহাম্মদ আহসানুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় মুক্তার গ্রুপের সেকান্দর বাদী হয়ে ১৫ জনকে আসামি করে মামলা করেছে, এদের মধ্যে এজাহার নামীয় মোশারফ নামের একজনকে রাতেই আটক করা হয়েছে। আজ সকালে তাকে কুমিল্লা কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: