আজ: ১২ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১০:৫৫
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ বাংলাবান্ধায় মুজিব বর্ষ সাইক্লিং এক্সপিডিশনের শুভ উদ্বোধন

বাংলাবান্ধায় মুজিব বর্ষ সাইক্লিং এক্সপিডিশনের শুভ উদ্বোধন


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৮/১১/২০২০ , ৭:০২ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


পঞ্চগড় জেলাধীন তেঁতুলিয়া উপজেলার বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীকে স্মরণীয় করে রাখতে মুজিব বর্ষ সাইক্লিং এক্সপিডিশনের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

আজ রোববার দুপুরে সেনাবাহিনীর কয়েকজন নারী সৈনিকসহ ১০০ জন সেনা সদস্য তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট থেকে টেকনাফ পর্যন্ত ১ হাজার ১০ কি.মি. পথ পাড়ি জমানোর যাত্রা শুরু করে। বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্টে মুজিববর্ষ সাইক্লিং এক্সপেডিশনের ফ্লাগ অব অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।
উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন ঘোষণা করেন, বিএ-৩৩৫৭ এন ডি সি, এ এফ ডব্লিউসি, পিএসসি, জিওসি ৬৬ পদাতিক ডিভিশন ও রংপুর এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মো: নজরুল ইসলাম।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক ড. সাবিনা ইয়াসমিন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী, বিএ-৩৭৯৭, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ওমর সাদি, কমান্ডার ১০ আর্টিলারি ব্রিগেডার রামু, বিএ-৪৬৩৯ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মাহবুবুর রহমান সিদ্দীক, এ এফ ডব্লিউ, পিএসসি, কমান্ডার ২২২ পদাতিক ব্রিগেড, রংপুর রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কায়সার হাসান মালিক, অধিনায়ক ১৮ বিজিবি ব্যাটালিয়ন পঞ্চগড় লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ আনিসুর রহমানসহ সেনা সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধন অনুষ্ঠান সূত্রে জানাযায়, সাইক্লিং এক্সপেডিশন বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট হতে সড়ক পথে ক´বাজার টেকনাফ এর উদ্যেশ্যে যাত্রা করেন। ১০০ জনের মধ্যে ৮৫জন সৈনিক এবং অন্যন্য পদবি ও অফিসার ১৫জন। এতে বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট হইতে ক´বাজার টেকনাফের দুরত্ব ১হাজার ১০কিঃ মিঃ অতিক্রম করার মাঝে ১০টি জায়গা ব্রেক করবেন। জানাযায়, তেতুলিয়া উপজেলা, পঞ্চগড় জেলা পিটিসি, সৈয়দপুর সেনানিবাস, রংপুর সিনানিবাস, রংপুর সিনানিবাস, বগুড়া সেনানিবাস, সাভার সেনানিবাস, ঢাকা সেনানিবাস, কুমিল্লা সেনানিবাস, চিটাগাং সেনানিবাস, রামু টেকনাফ স্থানগুলোতে যাত্রার ব্রেক করা হবে।
উক্ত অনুষ্ঠানে মেজর জেনারেল নজরুল ইসলাম বলেন, সরকার ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত সময়কালকে মুজিববর্ষ হিসেবে উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ পর্যন্ত সাইকেলে দীর্ঘ পথ পাড়ি দেবার দুঃসাহসিক প্রয়াস গ্রহণ করা হয়েছে। সম্পূর্ণ পথে জাতির পিতার জন্মশত বর্ষের চেতনাকে ধারণ করার জন্য সেনাবাহিনীর সকল ফরমেশনের ১০০ জন সাইক্লিষ্টের অংশগ্রহণে এই বছরকে আরও তাৎপর্যপূর্ণ করে তোলার প্রচেষ্টা গ্রহণ করা হয়েছে। একইসঙ্গে একাত্তরের চেতনাকে মহিমান্বিত করে তোলার জন্য ৭১ জন সাইক্লিষ্ট এই অপরাজেয় সাইক্লিং এক্সপেডিশন চলমান রাখবে। আগামী ০৩ ডিসেম্বর টেকনাফে মুজিব বর্ষ সাইক্লিং এক্সপেডিশন শেষ হবে।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: