আজ: ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি, রাত ৮:৪৬
সর্বশেষ সংবাদ
ফেসবুক থেকে, মতামত আমি ক্ষুব্ধ, আমি লজ্জিত, আমি বিস্মিত!!

আমি ক্ষুব্ধ, আমি লজ্জিত, আমি বিস্মিত!!


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১৩/০৪/২০২০ , ১০:১৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: ফেসবুক থেকে,মতামত


আমি ক্ষুব্ধ, আমি লজ্জিত, আমি বিস্মিত!!

করোনা যুদ্ধের সর্বশেষ ঠিকানা – চিকিৎসকরাই। আজ মুখোশ পরা তৈল মর্দনকারী চাটুকাররা জাতির এই দুর্যোগময় মুহুর্তে চিকিৎসকদের -জনগণের প্রতিপক্ষ হিসেবে দাঁড় করানোর জন্য ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। চিকিৎসকগণ জনগণের প্রতিপক্ষ নয় বরং প্রকৃত বন্ধু।

কুয়েত মৈত্রী করোনা হাসপাতালের ৬ (ছয়) জন চিকিৎসক বরখাস্তে, আসামীর মতো মিডিয়ায় ছবি প্রকাশে – আমি বাকরুদ্ধ এবং স্থম্ভিত। এতে চিকিৎসা কর্মীদের মাঝে ভূল ম্যাসেজ প্রদানের মাধ্যমে সামগ্রিক চিকিৎসাসেবা ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। অতএব সাধু সাবধান!! এই মুহুর্তে চিকিৎসকদের মনোবল ও আস্থা ভেংগে পড়লে, পুরো স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেংগে পড়বে।

মনে রাখবেন, চিকিৎসকরা প্রণোদনা চায় না, চায় শুধু চিকিৎসাসেবা প্রদানের জন্য সুরক্ষিত পরিবেশ , সুরক্ষা এবং স্বীকৃতি।

দায়িত্বহীনতা নয়, পরিবারের মায়ার বন্ধন ছিন্ন করে দায়িত্ব পালনে- জীবনের ঝুকিকে হাসিমুখে আলিঙ্গন করে আমরা চিকিৎসাসেবা প্রদানে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। যারা ভূল তত্ত্ব এবং অসত্য তথ্য প্রদান করে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপচেষ্টা করেছেন তাদের প্রতি চিকিৎসাকর্মীদের বিশ্বাস ও আস্থা নেই। এই মুহুর্তে সমন্বয়হীনতা নয়, আস্থা ও পরস্পরের প্রতি বিশ্বাস বড় প্রয়োজন।

আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক, আমাদের একমাএ ঠিকানা -সহনশীল, সংবেদনশীল ও মানবিক “শেখ হাসিনা”।

ষড়যন্ত্রকারী ও অদক্ষ নেতৃত্বের মুখোশ উন্মোচিত হোক, তৈলমর্দন চাটুকারিতা বন্ধ হোক, শুভবুদ্ধির উদয় হোক।

জয় বাংলা।

লিখেছেন: ডাঃ উত্তম কুমার বড়ুয়া , পরিচালক , শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ।

Comments

comments

Close