আজ: ১২ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং, বৃহস্পতিবার, ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী, সকাল ১১:১৭
সর্বশেষ সংবাদ
অপরাধ, জাতীয়, প্রধান সংবাদ, বাংলাদেশ সাগর-রুনি হত্যা: প্রতি‌বেদন দা‌খিলের সময় পেছালো ৬৯ বার

সাগর-রুনি হত্যা: প্রতি‌বেদন দা‌খিলের সময় পেছালো ৬৯ বার


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১৪/১১/২০১৯ , ২:১৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: অপরাধ,জাতীয়,প্রধান সংবাদ,বাংলাদেশ


সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার তারিখ ফের পি‌ছি‌য়ে‌ছে। বৃহস্প‌তিবার (১৪ ন‌ভেম্বর) এই মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। ত‌বে, এদিন প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেনি তদন্ত কর্মকর্তা র‍্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার শফিকুল আলম। তাই, ঢাকার মে‌ট্রোপ‌লিটন ম্যা‌জি‌স্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাস ৩০ ডি‌সেম্বর প্রতিবেদন দাখিলের নতুন দিন ধার্য করেন। 

এ‌ নি‌য়ে প্রতি‌বেদনটি দা‌খি‌লের তা‌রিখ ৬৯ বারের ম‌তো পেছানো হলো।

গত ১১ ন‌ভেম্বর চাঞ্চল্যকর এই মামলার তদন্তের অগ্রগতি নিয়ে হতাশা প্রকাশ ক‌রে‌ছেন হাইকোর্ট। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা খন্দকার শফিকুল আলম সে‌দিন আদালত‌কে জানান, তদন্তে কোনো ক্লু (সূত্র) পাওয়া যায়নি। চারটি ডিএনএ প্রতিবেদনের মধ্যে দু’টি মিলেছে। এ দু’টিতে আসামিদের সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি বলে সেগুলো ফের যুক্তরাষ্ট্রে এফবিআই’র ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।

২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি রাতে ঢাকার পশ্চিম রাজাবাজারে সাংবাদিক দম্পতি মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সরওয়ার এবং এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন রুনি তাদের ভাড়া বাসায় নির্মমভাবে খুন হন। পরদিন ভোরে তাদের ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওই বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি রুনির ভাই নওশের আলী রোমান বাদী হয়ে শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা দায়ের করেন। প্রথমে মামলাটির তদন্ত করেন শেরেবাংলা নগর থানার এক কর্মকর্তা। ১৬ ফেব্রুয়ারি মামলার তদন্ত ভার পড়ে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) উত্তরের পুলিশ পরিদর্শক মো. রবিউল আলমের ওপর।

দুই মাস পর হাইকোর্টের আদেশে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নকে (র‌্যাব)। সেই থেকে সাত বছরের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এখনো তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেনি তারা।

Comments

comments

Close