আজ: ২২শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৮ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি, সকাল ৮:৪৬
সর্বশেষ সংবাদ
রাজধানী জুড়ে, রাজনীতি স্বেচ্ছাসেবক লী‌গ ঢাকা মহানগর কমিটি ঘোষণা ১৬ ন‌ভেম্বর: উত্তরে আলোচনায় এমএ লতিফ

স্বেচ্ছাসেবক লী‌গ ঢাকা মহানগর কমিটি ঘোষণা ১৬ ন‌ভেম্বর: উত্তরে আলোচনায় এমএ লতিফ


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১২/১১/২০১৯ , ১২:৫০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: রাজধানী জুড়ে,রাজনীতি


আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তরের কমিটি আগামী ১৬ নভেম্বর ঘোষণা করা হবে। ওইদিন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সম্মেলনের দিন গুরুত্বপূর্ণ দুই ইউনিটে নতুন নেতৃত্বের নাম ঘোষণা করা হবে।গত ১১ই নভেম্বর সোমবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের ‌স্বেচ্ছা‌সেবক লী‌গ দক্ষিণের সম্মেলন উদ্বোধনের পর একথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।  তিনি বলেন , ‘আমরা স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তর-এর নেতৃত্ব নির্বাচনের ক্ষেত্রে আরও সময় নিতে চাই এবং বিচার বিশ্লেষণ করতে চাই। সেজন্য আমরা চাচ্ছি আগামী ১৬ নভেম্বর স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে, সেখানে উত্তর ও দক্ষিণ শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হবে।’

সে পর্যন্ত স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীদের ধৈর্য ধরার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

এদিকে ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী  হিসেবে আলোচনায় এসেছেন মোহাম্মাদপুর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি লায়ন এমএ লতিফ । স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা কর্মীদের সাথে কথা বলে জানা যায় ,   ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে যে কয়েকজনের নাম শোনা যাচ্ছে তাদের মধ্যে লায়ন এমএ লতিফের   জনপ্রিয়তা সবচেয়ে বেশি।

লায়ন এমএ লতিফ  বলেন, আমি মোহাম্মদপুর স্বেচ্ছাসেবকলীগকে সুসংহতহ করার চেষ্টা করেছি। আগামীতে আমাদের নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে কাজ করে যাবো।নেত্রী যদি মনে করেন আমাকে দিয়ে সংগঠনকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব তবে যে কোন দায়িত্বভার নেয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছি । খবর নিয়ে জানা যায় ,  তিনি সাবেক ৪২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য ছিলেন এবং ২০০৪ ইং থেকে মোহাম্মাদপুর-আদাবর ও শেরেবাংলা নগর থানার আহ্বায়ক হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন । সংগঠনের সাধারণ কর্মীদের সাথে কথা হলে তারা জানান , লায়ন এমএ লতিফ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন কর্মী হিসেবে কখনো অর্থের লোভে কোন প্রকার অনৈতিক বা অন্যায় কাজে নিজেকে বিলিয়ে দেননি। অতি সাধারন জীবন যাপন করেন তিনি। বিগত দিনে বিএনপি জামাত বিরোধী আন্দোলন সংগ্রামে সাহসী ও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিলেন এই কর্মী বান্ধব নেতা ।  সাধারণ মানুষের কাছেও প্রবলভাবে জনপ্রিয় তিনি ।  পাশাপাশি পারিবারিকভাবে আওয়ামী রাজনীতিতে থানা জুড়ে সুনাম রয়েছে এমএ লতিফের পরিবারের । তার বড় ভাই আলহাজ নুরুল ইসলাম রতন ২৯ নং ওয়ার্ড (ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন) এর কাউন্সিলর ।  নুরুল ইসলাম রতন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিতপ্রাণ কর্মী যিনি  ১৯৬৯ সাল হতে ছাত্রলীগের সাথে যুক্ত ছিলেন  এবং শহীদ সোহরাওয়ারদী কলেজের এজিএস হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন  । ১৯৯০ সালে তৎকালীন ৪২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হন  , ১৯৯৪ থেকে ২০০৪ ইং সাল পর্যন্ত মোহাম্মাদপুর থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন  এবং বর্তমানে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য ।রাষ্ট্রের উন্নয়ন কাজে সহযোগিতা, সামাজিক অবক্ষয় রোধে সক্ষমতা, শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চেতনাকে বুকে ধারণ করে পদে কাজ করতে পারাকে সৌভাগ্য বলে মনে করেন তিনি । পাশাপাশি কোন ব্যক্তির রাজনীতি নয় বরং বঙ্গবন্ধুর আদর্শে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করাই তার লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন তিনি ।

Comments

comments

Close