আজ: ১১ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, মঙ্গলবার, ২৭শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী, রাত ২:২০
সর্বশেষ সংবাদ
অপরাধ, জেলা সংবাদ, রাজশাহী বিভাগ শিবির নেতার বাড়ি থেকে জিহাদী বইসহ পাকিস্তানি পতাকা উদ্ধা

শিবির নেতার বাড়ি থেকে জিহাদী বইসহ পাকিস্তানি পতাকা উদ্ধা


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ৮, ২০১৯ , ১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: অপরাধ,জেলা সংবাদ,রাজশাহী বিভাগ


হাবিল উদ্দিন: রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আমোদপুর গ্রামে আইয়ুব আলী নামে এক শিবির নেতার বাড়ি থেকে একবস্তা জিহাদী বই এবং একাধিক কুপনসহ পাকিস্তানি পতাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর ওই বাড়িতে শিবিরের গোপন বৈঠক চলার খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় বাঘা থানা পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তাৎক্ষণিক সটকে পড়ে শিবির নেতারা। পরে আইয়ুব এর বাড়ি তল্লাশি করে তার ঘর থেকে বিভিন্ন প্রকার দুই শতাধিক জিহাদী বইসহ পাকিস্তানি পতাকা ও দলীয় কুপন জব্দ করা হয়।

আইয়ুব আলী রাজশাহী জেলা ছাত্র শিবিরের আরডি এবং বাঘা উপজেলা ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতি বলে জানা গেছে। তার বাবার নাম আজগর আলী।

স্থানীয়রা জানায়, রাজশাহীর বাঘায় পুর্বের যে কোন সময়ের চেয়ে জামাতের অঙ্গ সংগঠন শিবির নেতাদের কর্ম তৎপরতা বৃদ্ধি পেয়েছে। তারা চলতি জেএসসি পরীক্ষা ২০১৯ শুরু হবার আগের দিন আমোদপুর জামে মসজিদে ২০ জন তরুণ পরীক্ষার্থীর মাঝে পরীক্ষা উপকরণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন। এর একসপ্তাহ পূর্বে নদীতে ভ্রমণসহ রাতে গোপন বৈঠক ও রাতের খাবারের ছবি উপজেলা ছাত্র শিবিরের সভাপতি দুর্জয় আলম সবুজ এর ফেসবুকে পাওয়া গেছে।

পুলিশ জানা্য়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর শিবির নেতা আইয়ুব আলী বাড়িতে প্রায় ১৫-২০ জন নেতা-কর্মী গোপন বৈঠক করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান যায় বাঘা থানা পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে শিবির নেতারা সেখান থেকে সটকে পড়ে। ঘটনার এক পর্যায় আইয়ুব আলীর ঘর তল্লাশি করে প্রায় দুই শতাধিক জিহাদী বই এবং একাধিক কুপনসহ পাকিস্তানি পতাকা উদ্ধার করা হয়।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) আতিক রেজা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর শিবির নেতা আইয়ুব আলীর বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে একবস্তা জিহাদী বই এবং অর্থ আদায় ও দলে যোগদানের কুপনসহ পাকিস্তানি পতাকা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Comments

comments

Close