আজ: ১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ২রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, বিকাল ৪:০৭
সর্বশেষ সংবাদ
রাজনীতি ফখরুলের অনুরোধে অনশন ভাঙলেন ছাত্রদলের বিবাহিতরা:

ফখরুলের অনুরোধে অনশন ভাঙলেন ছাত্রদলের বিবাহিতরা:


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৩/১১/২০১৯ , ২:১৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: রাজনীতি


বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অনুরোধে আমরণ অনশন ভাঙলেন ছাত্রদলের বিবাহিত নেতাকর্মীরা। এসময় ছাত্রদলের অনশনরত নেতাকর্মীদেরকে পানি পান করিয়ে অনশন ভাঙালেন বিএনপি মহাসচিব।

সংগঠনের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে রাখার দাবিতে গত ৪ দিন ধরে আমরণ অনশনে যান সংগঠনটির বিবাহিত নেতাকর্মীরা। দাবি আদায়ে গত বুধবার বেলা সাড়ে১১টায় রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে আমরণ অনশন শুরু করেন তারা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, রোববার অনশনরত দুই ছাত্রদলের নেতা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদেরকে স্যালাইন দেওয়া হয়। পরে দুপুর ১ টার দিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তাদের অনশন ভাঙান।

পরে ছাত্রদলের বিগত কেন্দ্রীয় কমিটির স্কুলবিষয়ক সম্পাদক আরাফাত বিল্লাহ খান বলেন, বিএনপি মহাসচিব বলেছেন, আমাদের আন্দোলনের বিষয় নিয়ে উনি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে কথা বলেছেন এবং আবারও কথা বলবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন। বিএনপি মহাসচিব আমাদের আরও আশ্বাস দিয়েছেন যে, বিবাহিতদের নিয়েই কমিটি গঠন করা হবে। একারণে আমরা আমাদের আমরণ অনশন স্থগিত করছি। তবে আগামীতে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্তের উপর বিবেচনা করে আমরা আমাদের পরবর্তী কর্মসূচি আপনাদেরকে জানাবো।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ছাত্রদলের ষষ্ঠ কাউন্সিলে ফজলুর রহমান খোকন সভাপতি এবং ইকবাল হোসেন শ্যামল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তবে ওই কাউন্সিলে দুটি গুরুত্বপূর্ণ শর্ত আরোপ করা হয়েছিল। একটি হলো- নির্বাচনে বিবাহিতরা প্রার্থী হতে পারবেন না। অন্যটি হলো-প্রার্থীরা কাস্টিং ভোটের ১০ শতাংশ না পেলে পরবর্তীতে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তারা স্থান পাবেননা। নির্বাচনে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে ২৮ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করলেও মাত্র ৬ জন দশ শতাংশের বেশি ভোট পান।

ছাত্রদলের একাধিক বিবাহিত নেতা দাবি করে বলেন, ছাত্রদলের কাউন্সিলে শুধুমাত্র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচনের ক্ষেত্রে বিবাহিতরা প্রার্থী হতে পারবেন না বলে শর্ত আরোপ করা হয়েছিল। পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তাদের অন্তর্ভুক্তির ব্যাপারে তখন কোনো শর্ত দেয়া হয়নি। এখন দুই সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটি যখন পূর্ণাঙ্গ করা হচ্ছে, তখন এই ইস্যুটি সামনে আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে আমরা ছাত্রদলের কাউন্সিলে দায়িত্বপালনকারী সংগঠনটির সাবেক নেতাদের সাথে যোগাযোগ করলেও তারা কোনো সমাধান দিতে পারেননি। তারা (সাবেক নেতারা) আমাদের বলেছেন, ছাত্রদলের নির্বাচন পরিচালনার ওই কমিটি পরবর্তীতে ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের ডাকলে তখন বিষয়টি তাকে বলবেন।

এর আগে গত ৩ জুন রাজীব-আকরামের নেতৃত্বাধীন ছাত্রদলের বিগত কেন্দ্রীয় কমিটি ভেঙে দিয়ে বয়সসীমা নির্ধারণ করে কাউন্সিলের মাধ্যমে সংগঠনের নতুন কমিটি গঠনের ঘোষণা দেয় বিএনপি। এর প্রতিবাদে অতীতের ধারাবাহিকতায় বয়ষ্কদের দিয়ে ছাত্রদলের নতুন কমিটি গঠনের দাবিতে আন্দোলনে নেমে সংগঠনটির ১২ নেতা বহিষ্কৃত হলেও এখনো প্রত্যাহার হয়নি তাদের বহিষ্কারাদেশ।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: