আজ: ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১০:৩২
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে রুশ ভাষায় প্রকাশিত তিনটি বই হস্তান্তর

প্রধানমন্ত্রীর কাছে রুশ ভাষায় প্রকাশিত তিনটি বই হস্তান্তর


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২০/১০/২০১৯ , ৬:০৬ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়


রুশ ভাষায় অনূদিত ওপ্রকাশিত তিনটি বই প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এই বই তিনটি হচ্ছে ‘শেখ মুজিবুর রহমান অ্যান্ড বার্থ অব বাংলাদেশ’ এবং ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ এছাড়া রুশ, বাংলা, ইংরেজি এবং আরবি ভাষায় প্রকাশিত ‘কনভারসেশন অব প্রফেসর ড. ভি নমকিন উইথ শেখ হাসিনা’ বইয়ের কপিও প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন অধ্যাপক নমকিন।‘শেখ মুজিবুর রহমান অ্যান্ড বার্থ অব বাংলাদেশ’ এবং ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বই দুটির অনুবাদক ও প্রকাশক রাশিয়ান একাডেমি অব সাইন্সেসের অধীন ইন্সটিটিউট অব ওরিয়েন্টাল স্টাডিজের অধ্যাপক ভি নমকিন। আজ রবিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার কার্যালয়ে গিয়ে দেখা করে বইয়ের কপি তার হাতে তুলে দেন অধ্যাপক নমকিন।

এছাড়া রুশ, বাংলা, ইংরেজি এবং আরবি ভাষায় প্রকাশিত ‘কনভারসেশন অব প্রফেসর ড. ভি নমকিন উইথ শেখ হাসিনা’ বইয়ের কপিও প্রধানমন্ত্রী দেন তিনি।পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে সামনে রেখে তার অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইটির ব্যাপকভাবে প্রচারের লক্ষ্যে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে শেখ হাসিনাকে অবহিত করেন অধ্যাপক ভি নমকিন।

এ সময় বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি প্রসঙ্গে ড. নমকিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভূতপূর্ব নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নে তিনি অভিভূত। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ এবং রাশিয়ার মধ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতার সম্পর্ক বিদ্যমান রয়েছে। বিশেষ করে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে রাশিয়ার সহযোগিতার প্রসঙ্গ তুলে ধরে তিনি বলেন, এ ধরনের বিদ্যুৎকেন্দ্র চালনায় বাংলাদেশের প্রশিক্ষিত প্রকৌশলী ও জনবল তৈরিতে রাশিয়া বিশেষভাবে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে।এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রুশ ভাষায় বইগুলো অনুবাদ ও প্রকাশ করার উদ্যোগ নেওয়ায় ড. ভি নামকিনকে ধন্যবাদ জানান।বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে রাশিয়ার সরকার ও জনগণের সমর্থন এবং সহযোগিতা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন শেখ হাসিনা।তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পর চট্টগ্রাম বন্দরে মাইন অপসারণ করতে গিয়ে রাশিয়ার অনেক সার্ভিসম্যান জীবন উৎসর্গ করেন।প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকারের বর্তমান লক্ষ্য হচ্ছে তৃণমূল পর্যায় থেকে দেশকে উন্নয়নের মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন পূরণ করা।প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান এসময় উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: