আজ: ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১১:৩৫
সর্বশেষ সংবাদ
রাজনীতি স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর উত্তরে আলোচনায় যারা

স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর উত্তরে আলোচনায় যারা


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১৯/১০/২০১৯ , ৬:৪৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: রাজনীতি


আওয়ামী লীগের চার সংগঠনের সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর থেকে চারিদিকে নতুন নেতৃত্ব আসার গুঞ্জন  । সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন ১৬ এবং মহানগরীর দুই অংশের সম্মিলিত সম্মেলন ১২ই নভেম্বর । স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ জানান , ‘ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সম্মেলন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এবার কেন্দ্রের সম্মেলনের সাথে সাথে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগও নতুন কমিটি পাবে বলে আশা করছি।’

স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা মহানগরের   দুটি কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদ-পদবি পাওয়ার আশায় তৎপরতা শুরু করেছেন ডজন খানেক নেতা
আনুষ্ঠানিকভাবে কেউ স্বীকার না করলেও মহানগর উত্তরের  স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেতে মাঠে নেমেছেন অনেকেইমহানগরের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ফরিদুর রহমান খান ইরানের পাশাপাশি সভাপতি পদে আলোচনায় রয়েছেন নব্বই দশকের ছাত্রনেতা ইসহাক মিয়া
মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আলোচনায় রয়েছেন মোহাম্মাদপুর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি লায়ন এমএ লতিফ তিনি সাবেক ৪২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য ছিলেন এবং ২০০৪ ইং থেকে মোহাম্মাদপুর-আদাবর ও শেরেবাংলা নগর থানার আহ্বায়ক হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন সংগঠনের সাধারণ কর্মীদের সাথে কথা হলে তারা জানান , লায়ন এমএ লতিফ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন কর্মী হিসেবে কখনো অর্থের লোভে কোন প্রকার অনৈতিক বা অন্যায় কাজে নিজেকে বিলিয়ে দেননিঅতি সাধারন জীবন যাপন করেন তিনিবিগত দিনে বিএনপি জামাত বিরোধী আন্দোলন সংগ্রামে সাহসী ও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিলেন এই কর্মী বান্ধব নেতা   সাধারণ মানুষের কাছেও প্রবলভাবে জনপ্রিয় তিনি  

 

এদিকে এমএ লতিফ ছাড়াও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মহানগর উত্তরে  আলোচনায় রয়েছেন মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম মনোয়ার হোসেন বিপুল ও ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রচার সম্পাদক মোঃ দুলাল মিয়া ।

তাদের কেউ সরাসরি তদবিরের কথা অস্বীকার করলেও ফেসবুকে তাদের অনুসারীদের পক্ষ থেকে কৌশলী প্রচার চালানো হচ্ছে। ‘অমুক ভাইকে অমুক পদে দেখতে চাই’ বলে আলোচনায় থাকা প্রায় সবাই ফেসবুকে তৎপরতার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন বলে জানা গেছে। এ ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানিয়েছেন আলোচনায় থাকা প্রায় সব নেতাই। ফলে কৌশলী প্রচার চালালেও তাদের কেউ প্রকাশ্যে কিছু বলছেন না।

তবে  সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ হওয়ার নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। ঝিমিয়ে পড়া নেতা কর্মীদের মাঝে চাঙ্গা ভাব বিরাজ করছে।

 

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: