আজ: ১১ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে শাবান, ১৪৪২ হিজরি, রাত ৪:৪২
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, রংপুর বিভাগ তেতুঁলিয়ায় ড্রেজারের কবলে হারিয়ে গেছে ঐতিহ্যবাহী ডাহুক নদী

তেতুঁলিয়ায় ড্রেজারের কবলে হারিয়ে গেছে ঐতিহ্যবাহী ডাহুক নদী


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৪/০৩/২০১৯ , ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,রংপুর বিভাগ


সাইদুজ্জামান রেজা,পঞ্চগড়: 
পঞ্চগড়ের তেতুঁলিয়া উপজেলায় পাথর খেকোদের দখলে রূপ লাবণ্য শোভা বর্ধনকারী  ডাহুক নদী এখন শীর্ণ নালা। এক সময়ে ডাহুক নদী  কালের স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে থেকে শোভা বর্ধন করে আসছিল । কিন্তু এখন   তার অস্তিত্ব হারিয়ে বিলিন হতে চলেছে রূপ ও তার যৌবন ।  ডাহুক  নদী  এখন ডিঙিয়ে পার হওয়া যায় ।
গতকাল  শনিবার  ( ২৩ মার্চ)  সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, তেতুঁলিয়া উপজেলার  কালিতলা, রওশন পুর, বালাবাড়ি,লোহাকাচি  এলাকায় ডাহুক নদীর বুক চিরে  ড্রেজার মেশিন দিয়ে চলছে পাথর উত্তোলন । নদীটি দেখলে মনে হয় ছোট একটি নালায় পরিণত হয়েছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোন নজরদারি নেই। যেন সরকারের বেতন ভাতা সুবিধাদি ভোগ করে ক্ষমতাধরদের তাবেদারি করা তাদের কাজ হয়ে গেছে,  তা নিজ মুনাফা লাভের আশায় ।
স্বাধীনতা হারিয়ে পাথর  খেকো দখলদারিদের রোষানলে পড়ে নদীর জীবন দুর্বিসহ হয়ে পড়েছে। বুক চিরে চলছে পাথর উত্তোলন। আর সরকারের বেতন ভোগি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ একেবারেই নীরব। যেন নদীর ভারসাম্য রক্ষার দায়িত্ব জ্ঞানটুকুও লোপ পেয়েছে কর্তাব্যক্তিদের । পানির অপর নাম জীবন। এ  নদীর পানি উপজেলার আবহাওয়া, জলবায়ু, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে চলছিল সুদীর্ঘ কাল ধরে  ।
সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নদীর দিকে কোন নজরদারি না দেওয়ার কারনে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে নদী খেকোরা।
নদী দখল করে ড্রেজার মেশিনে পাথর উত্তোলনের ব্যাপারে তেতুঁলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ জহুরুল ইসলাম জানান ,ইতোপূর্বে অভিযান দিয়েছি আমি ,  নদীর কোন সীমানা খুঁজে পাইনি ,নদীর  সীমানা নির্ধারনে উপজেলা প্রাশাসন কোন সহযোগীতা করছে না। সীমানা নির্ধারন হলে নদী রক্ষার দায়িত্ব আমার’
এ বিষয়ে তেতুঁলিয়া  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানিউল ফেরদৌস বলেন, ড্রেজার বিষয়ে   আপনি ওসির সাথে কথা বলেন। পুলিশ প্রশাসন ধরে আনলে আমি মোবাইল কোর্ট করবো ।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: