আজ: ১৭ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি, ভোর ৫:৪৩
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ রাঙ্গামাটিতে শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সম্পর্কিত জবাবদিহীতা বিষয়ক অধিবেশন অনুষ্ঠিত

রাঙ্গামাটিতে শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সম্পর্কিত জবাবদিহীতা বিষয়ক অধিবেশন অনুষ্ঠিত


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১২/০৩/২০১৯ , ৩:১৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


মোঃ নুরুল আমিন,রাঙ্গামাটি: সব ক্ষেত্রেই শিশুদের মতামতের প্রাধান্য দেওয়া উচিৎ বলে মন্তব্য করেছেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ।

মঙ্গলবার ন্যাশনাল চিলড্রেনস টাস্কফোর্স (এনসিটিএফ)’র আয়োজনে রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সম্পর্কিত জবাবদিহীতা বিষয়ক অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘অংশগ্রহণ একটি শিশুর দক্ষতা, আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদা বৃদ্ধিতে সহায়ক ভুমিকা রাখে। তাই তাদের মতামতগুলো গুরুত্বের সঙ্গে আমলে নিয়ে আমাদের নিরসন করতে হবে।’

স্থানীয় বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা গ্রীণ হিল ও প্লান ইন্টারন্যাশনালের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন এনসিটিএফ কাটাছড়ি শাখার সভাপতি সুপ্রিয় চাকমা।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, সিভিল সার্জন ডা. শহীদ তালুকদার, বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা হিমাওয়ান্তির নির্বাহী পরিচালক টুকু তালুকদার, গ্রীণ হিলের কর্মকর্তা লাল চুয়াক লিয়ানা পাংখোয়া, উন্নয়ন সংস্থা প্রগ্রোসিভের নির্বাহী পরিচালক সুচরিতা চাকমা, রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রনতোষ মল্লিক, শাইনিং হিলের নির্বাহী পরিচালক মো. আলী’সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ।

অধিবেশনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এনসিটিএফ’র জেলা কমিটির সভাপতি শিপা আক্তার।

অনুষ্ঠানে এনসিটিএফ’র জেলা ও কাটাছড়ি কমিটির শিশু প্রতিনিধিরা তাদের এলাকার স্বাস্থ্য, সুরক্ষা, বিনোদন, খেলাধুলা, শিক্ষা বিষয়ক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের ওপর শারীরিক ও মানসিক শাস্তি, বয়ঃসন্ধিকালের সমস্যা, বাল্য বিবাহ, পানি সমস্য সংক্রান্ত নানা বিষয়ে সমস্যা তুলে ধরে।

অধিবেশনে আগত অতিথিগণ শিশুদের সুচিন্তিত সুপারিশের প্রশংসা করেন এবং সেগুলো বিবেচনার আশ্বাস দেন।

প্রধান অতিথি তাৎক্ষণিক কাটাছড়ি বিদ্যালয়ে ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রদানের ঘোষণা দেন। ছাত্রীদের জন্য আলাদা টয়লেট স্থাপন ও পানির সমস্যা নিরসনের প্রতিশ্রুতি দেন।

বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের নানা উদাহরণ নিয়ে বলা যায়, শিশুদের অংশগ্রহণের ফলে আইন, নীতিমালা ও সেবা দান কার্যক্রমগুলোর মানোন্নয়ন করা সম্ভব হয়।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: