আজ: ১২ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে শাবান, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১২:০২
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ কবিরহাটে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সমর্থকের ওপর হামলা

কবিরহাটে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সমর্থকের ওপর হামলা


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৬/০৩/২০১৯ , ৯:৫৪ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


সাইফ উদ্দিন বাবর: নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুই স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকের ওপর হামলা অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে জেলা নির্বাচন কমিশনারে কার্যালয়ে এই হামলার ঘটনা ঘটে।  কবিরহাট উপজেল পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী জেলা নির্বাচন কমিশনারে কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র যাছাই বাছাই শেষে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী খাদেমা আক্তার রোজি ও আলাবক্স তাহের টিটু সমর্থকেরা জেলা নির্বাচক কর্মকর্তার কার্যালয়ে থেকে বেরিয়ে (৩য় তলা) থেকে নিচের নামার সময় আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুন নাহার শিউলী সমর্থিত লোকেরা স্বতন্ত্র দুই প্রার্থীর মনোনয়নপত্রকে ভুয়া ও অবৈধ বলে চিৎকার করে সিঁড়ি দিয়ে নেমে এসে কার্যালয়ের সামনে স্বতন্ত্র প্রার্থী খাদেমা আক্তার রোজি সমর্থক ও প্রস্তাবকারী কবিরহাট পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোছলে উদ্দিন নবীর উপর অতর্কিত হামলা চালায়।
এদিকে মনোনয়নপত্র যাছাই বাছাই শেষে দুই স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন জেলা নির্বাচন কমিশনের রিটার্নিং অফিসার মো. রবিউল আলম।
স্বতন্ত্র প্রাথীদের মনোনয়নপত্র বৈধতার খবর শুনে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা কামরুন নাহার শিউলী ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা তাদের উপর হামলা চালায়।
আহত মোছলে উদ্দিন জানান, প্রশাসন ও জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেত্ববৃন্দের উপস্থিতিতে আমরা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে বেরিয়ে ভবনের নিচে আসলে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা বর্তমান চেয়ারম্যানের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা আমাদের উপরে হামলা চালায়। পরে সংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে অকর্থ্য গাল মন্দ করে পালিয়ে যায়।
স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী খাদেমা আক্তার রোজি জানান, গণতান্ত্রিক দেশে ভোটের অধিকার বস্তবায়নের লক্ষ্যে এবং কবিরহাট উপজেলার সর্বস্তরের জনগনের অধিকার বাস্তবায়ন করার জন্য তৃণমূলের সিদ্ধান্তে আমি স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে গত ৪ মার্চ কবিরহাট উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটানিং অফিসারের কার্যালয়ে গিয়ে আমার মনোনয়ন পত্র দাখিল করি। তারই ধারা বাহিকতায় আজ জেলা নির্বাচন কমিশনারে কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র যাছাই বাছাই শেষে আমার ও আলাবক্স তাহের টিটুর মনোনয়ন পত্রে কোন প্রকার ত্রুটি না থাকায় আমাদের মনোনয়ন পত্র বৈধতা পাই। আমাদের মনোনয়ন পত্র বৈধতা খবর শুনে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর লেলিয়ে দেওয়া সন্ত্রাসী বাহিনী আমি এবং আমার প্রস্তাবকারীর উপর জেলা নির্বাচন অফিসের কার্যালয়ের নিছে হামলা চালায়।
এরপর আমাকে বিভিন্ন প্রকার গাল, মন্দ করে আমার প্রস্তাবকারীকে গুরত্বর আহত করে পালিয়ে যায়। আমি এর তীব্র নিন্দা জানায় এবং আমার উপরে হামলা কারীদের বিরুদ্ধে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও প্রশাসনের প্রতি বিনীত অনুরোধ করছি যে, যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য।
এবিষয়ে জানাতে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কামরুন নাহার শিউলীকে মুঠোফোনে দিলে তিনি রিসিভ করেননি।
স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ও তার প্রস্তাবকারীর উপর হামলার বিষয়ে জানতে চাহিলে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রবিউল আলম জানান আমরা ঘটনাটি শুনেছি তবে আমাদের কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নিব।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: