আজ: ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১:৩২
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, প্রধান সংবাদ, রাজধানী জুড়ে আগামী এক বছরের জন্য উত্তর ঢাকার নগরপিতা আতিকুল ইসলাম

আগামী এক বছরের জন্য উত্তর ঢাকার নগরপিতা আতিকুল ইসলাম


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০১/০৩/২০১৯ , ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,প্রধান সংবাদ,রাজধানী জুড়ে


ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) উপনির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আতিকুল ইসলাম।এক হাজার ২৯৫টি কেন্দ্রের সবকটির ঘোষিত ফলে নৌকা প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৮ লাখ ৩৯ হাজার ৩০২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. শাফিন আহমেদ পেয়েছেন ৫২ হাজার ৪২৯ ভোট। আগামী এক বছর আতিকুল ইসলাম উত্তর ঢাকার নগরপিতা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্থাপিত ‘ফলাফল সংগ্রহ ও পরিবেশন কেন্দ্র’ থেকে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেম তাকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন।
শুক্রবার ( ১ মার্চ) সকাল ১১টায় চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হয় ।
অনেকটা প্রতিদ্বন্দ্বিহীন নির্বাচনে ভোটারদেরও তেমন আগ্রহ ছিল না। নির্বাচনে পাঁচজন মেয়ার প্রার্থী থাকলেও আতিকুল ইসলামের মূল প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী শাফিন আহমেদ। তবে ভোটের ফলে তার প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যাও উল্লেখযোগ্য ছিল না।
ডিএনসিসি নির্বাচনে অপর তিন মেয়র প্রার্থী ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আনিসুর রহমান দেওয়ান আম প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৮ হাজার ৬৯৫ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আব্দুর রহিম টেবিল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৪০ ভোট এবং পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (পিডিপি) শাহীন খান বাঘ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৮ হাজার ৫৬০ ভোট।
নির্বাচনে মোট ভোটারের সংখ্যা ৩০ লাখ ৩৫ হাজার ৬২১ জন। ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা এক হাজার ২৯৫টি।
বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত টানা এই সিটিতে ভোট নেওয়া হয়। এ নির্বাচনে সকাল থেকে বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে ঘুরে ভোটার উপস্থিতি তেমন একটা দেখা না গেলেও যেসব নতুন ওয়ার্ডে কাউন্সিলর নির্বাচন হচ্ছে সেখানে ভোটার উপস্থিতি তুলনামূলক বেশি দেখা যায়। দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপি ও তার মিত্ররা এ নির্বাচন বয়কট করেছে।
প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক মারা যান। এতে পদটি শূন্য হয়ে যায়। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে মেয়র পদে উপনির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণা করে। কিন্তু, সম্প্রসারিত ওয়ার্ডগুলোর সীমানা নির্ধারণ জটিলতার কারণে উত্তর ও দক্ষিণের দুজন সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিট করায় নির্বাচন পিছিয়ে যায়। এই রিট জটিলতার সমাধান হওয়ায় উত্তর সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং উত্তর ও দক্ষিণের সম্প্রসারিত ৩৬টি ওয়ার্ডে নির্বাচন এবং ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলরের মৃত্যু হওয়ায় সেখানে বৃহস্পতিবার উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: