আজ: ৩রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি, সন্ধ্যা ৬:২৩
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ গজারিয়ায় সরিষার বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসির ঝলক

গজারিয়ায় সরিষার বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসির ঝলক


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১৭/০২/২০১৯ , ৪:১২ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


গাজী মাহমুদ পারভেজ:- মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলায় এবার সরিষার বাম্পার ফলন হয়েছে। দুইটি ফসলের মাঝে কৃষকরা সরিষা চাষের ফলনকে বোনাস হিসেবে দেখছেন। একসময় কৃষকরা আমন ধান কাটার পর জমি পতিত ফেলে রাখত। সময়ের সাথে সাথে তা পুরোটাই পাল্টে গেছে। আমন ধান কাটার পর জমিতে সরিষা লাগাতে হয়। মাত্র ৬৫ থেকে ৭৫ দিনের মধ্যে ফসল কৃষক ঘরে তুলতে পারেন। দিগন্তজোরা ফসলের মাঠে সরিষা ফুলের হলুদের সমারোহ শেষে ফলনের ভারে সরিষা গাছ নুয়ে পড়েছে। গজারিয়া উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এই চিত্র দেখা গেছে। একাধিক কৃষকের সাথে কথা বলে জানা গেছে সরিষা চাষ খুবই লাভজনক একটা আবাদ।
অতি অল্প সময়ে, অল্প পুজিতে কৃষকরা লাভবান হন। তাই অধিকাংশ কৃষক এখন সরিষা চাষের দিকে ঝুকছেন। এক বিঘা (৩৩ শতাংশ) জমিতে সরিষা আবাদ করতে খরচ হয় ২ থেকে আড়াই হাজার টাকা। যদি সঠিকভাবে পরিচর্চা করা যায় তাহলে প্রতি বিঘায় ফলন হয় ৬ থেকে ৭ মন সরিষা। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর ‚গজারিয়া উপজেলায় ৮টি ইউনিয়নে প্রায়/ আনুমানিক ১ হাজার ৬ শত ২২ হেক্টর জমিতে সরিষা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। অর্জিত হয়েছে ১ হাজার ৩ শত ৯২ হেক্টর। যা গত বছর একই সময়ে ছিল ১ হাজার ২ শত হেক্টর আর অর্জিত হয়েছিল ১ হাজার ২ শত ২০ হেক্টর জমিতে। গজারিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তৌফিক আহমেদ নুর বলেন, সরিষা মূলত একটি মশলা জাতীয় ফসল। গজারিয়া উপজেলায় এবার সরিষার বাম্পার ফলন হবে বলে আশা করা হচ্ছে। স্বল্প  সময়ের মধ্যে কৃষককে অধিক ফলন পেতে নানাভাবে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। কৃষি কর্মকর্তাগণ সার্বক্ষণিক মাঠে কৃষকের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। যাতে কৃষকের কোন সময় নষ্ট না হয়। আশা করছি কৃষক আশানুরুক ফলন ও দাম পেয়ে খুশি হবেন।

Comments

comments

Close