আজ: ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, বিকাল ৫:১৫
সর্বশেষ সংবাদ
ফেসবুক থেকে কেউ ভোলে না কেউ ভোলে!

কেউ ভোলে না কেউ ভোলে!


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১২/০২/২০১৯ , ১:২১ অপরাহ্ণ | বিভাগ: ফেসবুক থেকে


 

কিছু ভালবাসা মুন্নার জন্যও রাখুন আপনারা।
মুন্না! কোন্ মুন্না?
মুন্না, মোনেম মুন্না। আবাহনীর মুন্না। বাংলাদেশ জাতীয় দলের সেরা ডিফেন্ডার মুন্না। কোলকাতার ইস্ট বেঙ্গলের হয়ে খেলা অসংখ্যবারের সেরা খেলোয়াড় মুন্না। দেশের বাইরে বাংলাদেশ ফুটবলে প্রথম শিরোপা জয় করে এনে দেওয়া মুন্না।
মুন্নাকে ভুলবেন না।

১২ ফ্রেবুয়ারি ২০০৫। মোনেম মুন্না মাত্র ৩৯ বছর বয়েসে চলে গেছেন এই পৃথিবী ছেড়ে। আজ মুন্নার ১৪তম মৃত্যু বার্ষিকী। অথচ এই-তো সেদিনই ২০০৫ সালের ১২ ফেব্রুয়ারির ভোর ছয়টায় তিনি আমাদের ভুলে যাওয়ার সীমানায় চলে গেলেন। সেদিনই ত! বেশিদিনের কথা না কিন্তু।

ভোলা না ভোলা নিয়ে একটি ঘটনা বলি- আমি তখন প্রথম আলোয়। ঘটনাটি ২০০৮ সালের। সেবছর ঢাকা সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ মোনেম মুন্নার স্মরণে ধানমন্ডির ৮ নম্বর সেতুটির নামকরণ করে ‘মোনেম মুন্না সেতু’। সেই খবরটি প্রেসরিলিজ হিসেবে আসে আমাদের পত্রিকায়। সেই প্রেসরিলিজটি সম্পাদনা করেছিলেন আমাদের রিপোর্টিং বিভাগের এক সিনিয়র সাংবাদিক। আমি সংবাদটি পত্রিকার ১৭ নম্বর পৃষ্ঠায় মেকআপ করতে নিয়ে গেছি। দেখি, যতো জায়গায় ‘মোনেম মুন্না’ লেখা ছিল, সেগুলোকে তিনি ‘মোনেম মান্না’ করে দিয়েছেন। আমি সেদিন বিস্মিত হয়েছিলাম, কীভাবে তার মতো একজন সিনিয়র সাংবাদিক মুন্নাকে চিনতে ব্যর্থ হলেন বা ভুলে গেলেন বা …!

ওই সিনিয়রের কথা বাদই দেই। মোনেম মুন্নার মৃত্যুবার্ষিকীতে আজকে বাফুফের প্রাক্তন খেলোয়াড় কর্তাগণ, ক্লাব কর্তারা কি করছেন? পত্রিকাগুলো কি ছেপেছে আজ? অথচ পেলে, মেসি, নেইমারদের নিয়ে কতো লেখালেখি দেখি, কতো জায়গা বরাদ্দ। আফসোস! মুন্নার মতো প্লেয়াররা ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, হল্যান্ড, জার্মান, ইংল্যান্ড এর মত দেশে জন্মাতেন, তবে নিশ্চিতভাবে পৃথিবীখ্যাত হতেন তারা।

আমি আবাহনীর সমর্থক হয়েছিলাম মোনেম মুন্নার মতো খেলোয়াড়দের খেলা দেখে। তার ভক্ত মোহামেডানেও অসংখ্য। তার মৃত্যু দিনটায় তাই মনবিষাদে ভরে যায়।

মৃত মানুষের হয়ত কেউ থাকে না। তাই তার অবদানগুলোও বিস্মৃত হতে থাকে। জীবিতদের হয়ত কোনো ঠেকাই পড়ে না মরা মানুষদের অবদান স্বীকার করবার।

লিখেছেনঃ লুৎফর রহমান হিমেল , সম্পাদক ও প্রকাশক ,প্রিয়দেশ ।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: