আজ: ৩রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি, সন্ধ্যা ৬:২৯
সর্বশেষ সংবাদ
খেলাধূলা, প্রধান সংবাদ রংপুরকে উড়িয়ে ষষ্ঠ বিপিএলের ফাইনালে ঢাকা

রংপুরকে উড়িয়ে ষষ্ঠ বিপিএলের ফাইনালে ঢাকা


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৬/০২/২০১৯ , ১০:২২ অপরাহ্ণ | বিভাগ: খেলাধূলা,প্রধান সংবাদ


রংপুরকে উড়িয়ে ষষ্ঠ বিপিএলের ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করলো স্বাগতিক ঢাকা ডাইনামাইটস। মাশরাফির রংপুরকে ৫ উইকেটে হারিয়ে একপ্রকার প্রতিশোধই নিল ঢাকা। কারণ গত আসরে এই রংপুরের কাছেই ফাইনালে হেরে শিরোপাবঞ্চিত হয়েছিল সাকিবরা। সেই ফাইনালে হারার শোধই নিল সাকিবরা। দ্বিতীয় কোয়ালিফায়েরের ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে ১৯.৪ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে রংপুর তুলেছে ১৪২ রান। জবাবে ২০ বল বাকি থাকতেই ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেছে ঢাকা। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি বিপিএলের ফাইনালে তামিমের কুমিল্লার বিপক্ষে শিরোপার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে সাকিবের ঢাকা।

দ্বিতীয় কোয়ালিফায়েরের ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে ভালোই সূচনা করেছিল দুই ওপেনার নাদিফ ও গেইল। কিন্তু পরপর তিন বলে তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে রংপুর। শুভাগত হোমের বলে টানা তিন ছক্কা মেরে পরের বলেই পোলার্ডের ক্যাচ হয়ে ফেরেন নাদিফ।

এরপরের ওভারে রুবেলের প্রথম বলেই উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ হন গেইল। দ্বিতীয় বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে পোলার্ডের হাতে ধরা পড়েন রুশো। এক বল খেলে কোনো রান না করেই ফিরে যেতে হয় রুশোকে।

এরপর ৬৪ রানের জুটি গড়েন মোহাম্মদ মিথুন ও রবি বোপারা। ১৪তম ওভারে কাজী অনিকের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ হন মিথুন। এর পরপরই ফিরে যান বেনি হাওয়েল। ১৫তম ওভারে সাকিবের বলে এলবিডব্লিউ হন তিনি। ১৬তম ওভারে অনিকের বলে রাসেলের হাতে ক্যাচ হন মাশরাফি। এরপর ১৮তম ওভারে নাহিদুল, ১৯তম ওভারে ফরহাদ রেজা ও শফিউল ইসলাম এবং ২০তম ওভারে আউট হন রবি বোপারা।

ঢাকা ডায়নামাইটসের পেসার রুবেল হোসেন ৩.৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট শিকার করেন। এছাড়া আন্দ্রে রাসেল ২টি, কাজী অনিক ২টি, শুভাগত হোম ১টি ও সাকিব আল হাসান ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

১৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারেই মাশরাফি ফিরিয়ে দেন ওপেনার উপুল থারাঙ্গাকে (৪)। আরেক ওপেনার সুনীল নারাইন ৮ বলে তিনটি বাউন্ডারিতে করেন ১৪ রান। এরপর জুটি গড়েন রনি তালুকদার এবং দলপতি সাকিব। ঢাকার অধিনায়ক ২০ বলে দুটি চার আর একটি ছক্কায় করেন ২৩ রান। রনি তালুকদার রানআউট হওয়ার আগে করেন ২৪ বলে চারটি চারের সাহায্যে ৩৫ রান। কাইরন পোলার্ড ৮ বলে একটি করে চার ও ছক্কায় করেন ১৪ রান।

আন্দ্রে রাসেল ১৯ বলে ব্যাটে ঝড় তুলে ৫টি ছক্কায় করেন অপরাজিত ৪০ রান। নুরুল হাসান সোহান ১৭ বলে ৯ রান করে অফরাজিত থাকেন।

রংপুরের দলপতি মাশরাফি ৪ ওভারে ৩২ রান খরচায় দুটি উইকেট পান। ফরহাদ রেজা ১ ওভারে ১৩ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। শফিউল ইসলাম ৩ ওভারে ২০ রান দিয়ে উইকেট শূন্য থাকেন। নাহিদুল ইসলাম ২ ওভারে ১৬ রান দিয়ে উইকেট শূন্য থাকেন। বেনি হাওয়েল ৩ ওভারে ১৭ রান খরচায় তুলে নেন একটি উইকেট। নাজমুল ইসলাম অপু ৩.৪ ওভারে ৪৭ রানের বিনিময়ে তুলে নেন একটি উইকেট।

Comments

comments

Close