আজ: ৯ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে রজব, ১৪৪২ হিজরি, বিকাল ৩:৩৮
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, প্রধান সংবাদ মানুষের সেবা করাটাই আমাদের কাজ : প্রধানমন্ত্রী

মানুষের সেবা করাটাই আমাদের কাজ : প্রধানমন্ত্রী


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৯/০৮/২০১৮ , ২:১৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,প্রধান সংবাদ


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মানুষের সেবা করাটাই আমাদের কাজ। ক্ষমতা ভোগের জন্য নয়, ক্ষমতা হলো মানুষের সেবার জন্য। ক্ষমতা হচ্ছে দায়িত্বপালন। কাজেই এ দায়িত্বটাই পালন করতে চাই। আজ বুধবার (২৯ আগস্ট) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চক্ষু হাসপাতাল ও ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

গোপালগঞ্জ জেলার চারপাশে ৮টি জেলার ২০টি উপজেলায় কমিউনিটি সেন্টার স্থাপন করা হয়। এ সময় ভিডিও কনফারেন্সে টুঙ্গিপাড়া, কোটালীপাড়া, লোহাগড়া, কাশিয়ানীসহ কয়েকটি উপজেলার উপকারভোগীদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান।তিনি বলেন, আমি সব সময় মনে রাখি যে, আমার বাবা দেশ স্বাধীন করে গেছেন। কাজেই জনগণের সেবা করাটাই আমার প্রথম কর্তব্য। মানুষের সেবা করাটাকে আমি কর্তব্য হিসেবে নেই।শেখ হাসিনা বলেন, শুধু গোপালগঞ্জে নয়, সারাদেশের মানুষের চিকিৎসাসেবা দেয়ার জন্য কমিউনিটি ক্লিনিক করেছি। এর মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছেছে। চিকিৎসাসেবা হলো মহৎ কাজ। এটা আমরা মানুষকে দিতে পারছি। এর চেয়ে ভালো কাজ আর হতে পারে না।প্রধানমন্ত্রী বলেন, চিকিৎসাসেবাসহ সব সেবাই আমরা মানুষকে দিয়ে যাচ্ছি। এর পর মানুষ আমাতের ভোট দিলে আবার সেবা করার সুযোগ পাব, না দিলে তো নাই। ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে আমরা সারাদেশে ১৩ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক করেছিলাম। ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় এসে সব কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয়। পরে আবার ক্ষমতায় এসে সেসব কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করি।তিনি বলেন, নতুন নতুন যেসব হাসপাতাল হচ্ছে সেগুলোয় অভিজ্ঞ ডাক্তার এবং নার্স আছে। তারা ভালো মানের সেবা দিতে পারছে। দেশের মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার জন্যই এখন বিদেশ থেকে নার্স এবং ডাক্তারদের ট্রেনিং দিয়ে আনা হচ্ছে।প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা জেলাপর্যায়ে মেডিক্যাল কলেজ করে দিয়েছি। দেশের প্রথম মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করে দিয়েছিলাম। দুটো মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় ইতোমধ্যে করা হয়েছে। আরও একটা করার পরিকল্পনা আছে। এভাবে পর্যায়ক্রমে আমাদের লক্ষ্য, প্রতিটি ডিভিশনাল হেডকোয়ার্টারে আমরা একটা করে মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় করে দেব। এর সঙ্গে আরও মেডিক্যাল কলেজও আমরা করে দিচ্ছি।’বিশ্ববিখ্যাত ভারতের অরবিন্দ আই কেয়ার ইনস্টিটিউটের সহযোগিতায় গোপালগঞ্জের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চক্ষু হাসপাতাল ও ট্রেনিং ইনস্টিটিউট থেকে রেটিনোপ্যাথি, গ্লুকোমা, কর্নিয়া, শিশু চক্ষু রোগ, ছানি অপারেশন, চোখের দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষাসহ  চোখের প্রায় সব ধরনের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। দরিদ্র রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়া হয়। বুধবার (২৯ আগস্ট) এ হাসপাতালটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: