আজ: ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৮:১৫
সর্বশেষ সংবাদ
আন্তর্জাতিক ট্রাম্প ও কিমের বৈঠক নিয়ে তোড়জোড়

ট্রাম্প ও কিমের বৈঠক নিয়ে তোড়জোড়


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ৩১/০৫/২০১৮ , ১০:৫১ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: আন্তর্জাতিক


তোড়জোড় চলছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আর উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের মধ্যে বৈঠক নিয়ে। মাঝখানে ট্রাম্পের বক্তব্য ঘিরে ক্ষণিকের জন্য দোলাচলের সৃষ্টি হলেও এখন পরিস্থিতি ধীরে ধীরে বৈঠকের অনুকূল হয়ে উঠছে।

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন এরই মধ্যে দুবার চীন সফর করেছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে দুবার বৈঠক করেছেন। পাশাপাশি তাঁর সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী, জেনারেলরা ছুটে যাচ্ছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, চীনে, রাশিয়ায়, সিঙ্গাপুরে। উত্তর কোরিয়ার মিত্র দেশগুলোর মন্ত্রীরাও ছুটে যাচ্ছেন পিয়ংইয়ংয়ে।

চির বৈরী দুই দেশের দুই নেতার ঐতিহাসিক বৈঠকটি ঠিক কবে হবে, তা জানা না গেলেও বৈঠকটি যে হবে—এ ব্যাপারে বেশ আশাবাদী হচ্ছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। এর আগে ১২ জুন সিঙ্গাপুরে দুই নেতার বৈঠকের একটি সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছিল।

সর্বশেষ উত্তর কোরিয়ার নেতার ডান হাত হিসেবে পরিচিত জেনারেল কিম ইয়ং চোল বৈঠক-পূর্ববর্তী আলোচনার জন্য মার্কিন মুল্লুকে গেছেন। এটা গত দুই দশকের মধ্যে উত্তর কোরিয়ার কোনো শীর্ষ ব্যক্তির মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সফর। কিম ইয়ং চোল এবং মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও কথা বলার পাশাপাশি ভোজও সেরেছেন। বৃহস্পতিবার আবার তাঁদের বৈঠকে বসার কথা রয়েছে।

নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে চোল আর মাইক পম্পেও ডিনার সেরেছেন। সেখানে পম্পেও মার্কিন অবস্থান তুলে ধরেন। পরে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক টুইটে জানিয়েছেন, উত্তর কোরিয়ার নেতা ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের বৈঠক নিয়ে কথা হয়েছে। কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করতে দুই দেশই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

এদিকে উত্তর কোরিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী চুয়ে সন-হুই দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত সুং কিমের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন। এ দুজনের লাগাতার বৈঠক চললে দুই দেশের সীমান্তবর্তী গ্রাম বেসামরিক অঞ্চল পানমুনজমে। বিরতি দিয়ে দিয়ে এই আলোচনা আগামী রোববার পর্যন্ত চলবে।

উত্তর কোরিয়ার নেতার চিফ অব স্টাফ কিম চ্যাং সনের সঙ্গে সিঙ্গাপুরে আলোচনায় বসেছে জো হেগেনের নেতৃত্বাধীন একটি মার্কিন প্রতিনিধিদল। এ ছাড়া রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ বৃহস্পতিবার পিয়ংইয়ং সফর করবেন ট্রাম্প-কিমের বৈঠককে ঘিরেই। রাশিয়াকে উত্তর কোরিয়ার মিত্র বলে বিবেচনা করা হয়। এরই মধ্যে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও আর রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে প্রথমবারের মতো টেলিফোনে কথা বলেছেন।

হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারা স্যান্ডার্সও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আগামী মাসে উত্তর কোরিয়ার নেতার সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বৈঠকের ব্যাপারে তিনিও আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। এমনও হতে পারে যে বৈঠকটি আগের নির্ধারিত ১২ জুনেই হয়ে যেতে পারে।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: