আজ: ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি, সকাল ৮:২৬
সর্বশেষ সংবাদ
ফেসবুক থেকে জামায়াতকে ধ্বংস করতে হলে চরমোনাইদের কাজে লাগাতে হবে

জামায়াতকে ধ্বংস করতে হলে চরমোনাইদের কাজে লাগাতে হবে


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ২৩/০৫/২০১৮ , ৩:৩৬ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: ফেসবুক থেকে


জামায়াত ইসলামির রাজনৈতিক মৃত্যু ঘটলেও এই দল নিয়ে এখন অনেকের মাথা ব্যথা নেই কারণ জামায়াত ইসলামি ক্ষমতাসীন দলের ভিতর মিলেমিশে একাকার হয়ে গেছে। জামায়াত ইসলামি নামক রাজনৈতিক দলটি নিয়ে আমার মাথা ব্যথা আছে প্রচুর কারণ এদের দলকে ধ্বংস করা গেলেও এদের ভোট কিন্ত কমেনি। জামায়াতের ভোট কমে না, কোনো ভাবেই কমে না। এখন প্রশ্ন হচ্ছে,ধর্ম ভিত্তিক রাজনৈতিক দল হিসেবে জামায়াতের বিকল্প তাহলে কোন দল আছে? আছে,অবশ্যই আছে।

প্রগতিশীল চেতনাধারী আল্লামা ফরিদ উদ্দিন মাসুদের কোনো রাজনৈতিক দল নেই;থাকলে ভালো হতো। রাজনীতি নিয়ে যারা ভাবেন বা চর্চা করেন তাদের বোঝানো হয়তো খুব সহজ হবে। এই দেশে এখন ধর্ম ভিত্তিক রাজনৈতিক দল হিসেবে যারা সব থেকে এগিয়ে আছে তাঁরা হচ্ছে ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন বাংলাদেশ। যাকে চরমোনাই দল হিসেবেও চিহ্নিত করা যায়। এই চরমোনাই গ্রুপের ভোটের সংখ্যা দেখলে রীতিমতো অবাক হতে হয়। দিনের পর দিন তাঁদের ভোট বাড়ছে। চরমোনাই গ্রুপের একটা পজিটিভ দিক আছে আর সেটি হচ্ছে তাঁরা প্রচণ্ড রকমের জামায়াত শিবির বিদ্বেষী। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ বা চরমোনাই পীরের বিভিন্ন ভিডিও ক্লিপ দেখলে স্পষ্টত বোঝা যায় যে,তাঁদের সাথে জামায়াতের আকীদা গত সমস্যা দৃশ্যমান।

চরমোনাই পীর বিভিন্ন জনসভায় জামায়াত ইসলামিকে গালমন্দ করেন এমনকি কিছুদিন আগে জামায়াত ইসলামি কে রাজাকারের দল হিসেবে এক জনসভায় ভাষণ দেন। আমি ধর্ম ভিত্তিক রাজনৈতিক দলের বিপক্ষে। তবে জামায়াত শিবিরকে যে বা যারা গালি দেয়,জামায়াত ইসলামি কে যারা কাফেরের দল হিসেবে চিহ্নিত করে,সর্বোপরি জামায়াত এর ধ্বংস যারা কামনা করে তাঁদের সাথে আমার কোনো শত্রুতা নেই।

জামায়াত ইসলামি মানেই কাল সাপের বিষ।যে বিষ শরীরে ছড়িয়ে পড়লে মৃত্যু অবধারিত। সেই বিষের সাহায্যেই এক মারণ রোগকে বধ করার পন্থা হচ্ছে চরমোনাই এর ইশা আন্দোলোন। আওয়ামীলীগ কিংবা বাকি প্রগতিশীল চেতনাধারীরা জামায়াতকে শেষ করতে পারবে না। জামায়াতকে ধ্বংস (ভোট ব্যাংক) করতে হলে এইসব চরমোনাইদের কাজে লাগাতে হবে। মোটা দাগে যাকে বলা হয় পলিটিক্স!

লিখেছেন- মোছাদ্দিক উজ্জ্বল , ব্লগার ও অনলাইন এক্টিভিস্ট 

Comments

comments

Close