আজ: ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৮:০৩
সর্বশেষ সংবাদ
খেলাধূলা জয় দিয়ে আইপিএল শুরু করল কলকাতা

জয় দিয়ে আইপিএল শুরু করল কলকাতা


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৯/০৪/২০১৮ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: খেলাধূলা


সুনিল নারিনের ঝড়ো অর্ধশতক ও অধিনায়ক দীনেশ কার্তিকের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে এবারের আইপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কোহলির রয়্যাল চ্যালানঞ্জেরস ব্যাঙ্গালুরুকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

১৭৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে নোঙ্গর ফেলে কলকাতা। সুনিল নারিনের ১৯ বলে ৫০ রানে ভর করে ৭ বল বাকি থাকতে জয় নিজেদের করে নেয় গৌতম গাম্ভির।

ব্যাঙ্গালুরুর দেয়া ১৭৭ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ক্রিস লিনকে দ্রুত হারালেও সুনিল নারিনের ব্যাটে দুর্দান্ত শুরু পায় কলকাতা। চতুর্থ ওভারেই দলীয় অর্ধশতক পার করে তারা। ব্যাঙ্গালুরুর বোলারদের তুলোধনা করে মাত্র ১৭ বলে চারটি ৪ ও পাঁচ ছয়ে নিজের অর্ধশতক পূরণ করেন সুনিল নারিন। অর্ধশতক হাকানোর দুই বল পরেই উমেশ যাদবের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান তিনি।

নারিন ফেরার পর তরুণ নিতিশ রানা ও অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক দায়িত্বশীল খেলতে থাকেন। রানা ২৫ বলে ৩৪ রান করে ফিরে গেলেও একপ্রান্ত আগলে রেখে খেলতে থাকেন কার্তিক।

শেষ পর্যন্ত আন্দ্রে রাসেলের ১১ বলে ১৬ ও কার্তিকের অপরাজিত ২৯ বলে ৩৫ রানের ইনিংসে ৭ বল বাকি থাকতেই ৬ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌছে যায় কলকাতা নাইট রাইডার্স।

এর আগে একাদশ আইপিএলের দ্বিতীয় দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে তারকা খচিত বেঙ্গালুরুকে টস জিতে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় কলকাতা নাইট রাইডার্সের নতুন দলপতি দিনেশ কার্তিক। ব্যাটিংয়ে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে আইপিএলের প্রথম সেঞ্চুরিয়ার ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। প্রথম ওভারে বিনয় কুমারকে ২ চার ও ১ ছক্কা হাকিয়ে ভালো কিছুর আভাস দিচ্ছিলেন ম্যাককালাম। ম্যাককালাম-ডিভিলিয়ার্সের ব্যাটিং ঝড়ে এদিন ১৭৬ রানের বড় সংগ্রহ পায় আরসিবি।

ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারে আরসিবি শিবিরে আঘাত হানে চাহালে। মাত্র ৪ রানে ডি কককে ফেরায় চাহালে। ডি কক ফিরলেও থামেনি ম্যাককালাম ঝড়। অন্যদিকে কিছুটা ধীর গতিতে ব্যাটিং করতে থাকে কোহলি। তবে এদিন খোলস ছেড়ে বেড়িয়ে আসতে পারেনি ভারতীয় অধিনায়ক। ৩৩ বলে ৩১ রানে তরুণ নিতিশ রানার বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেন কোহলি।

নারিনের ঘুর্ণি যাদুতে ২৭ বলে ৪৩ রানে থামে ম্যাককালাম।এরপর শুরু হয় ডিভিলিয়ার্স অধ্যায় মাত্র ২৩ বলে ৫ ছক্কায় ৪৪ রান করে ডিভিলিয়ার্স। এছাড়া অন্য কোন ব্যাটসম্যানরা নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেনি। শেষ দিকে মানডিপ সিংয়ের ১৮ বলে ৩৭ রানে ভর করে ১৭৬ রানের বড় পুজি পায় কোহলির বেঙ্গালুরু।

কলকাতার হয়ে নিতিশ রানা ও বিনয় কুমার ২টি করে উইকেট পায়।

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: