আজ: ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১২:২১
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, প্রধান সংবাদ, বিভাগীয় সংবাদ, রংপুর বিভাগ রথীশ চন্দ্র বাবুসোনা নিখোঁজ: আজহারের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যও বিবেচনায়

রথীশ চন্দ্র বাবুসোনা নিখোঁজ: আজহারের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যও বিবেচনায়


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৩/০৪/২০১৮ , ৬:০৯ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,প্রধান সংবাদ,বিভাগীয় সংবাদ,রংপুর বিভাগ


রংপুরে জাপানি নাগরিক হোসি কুনিও ও মাজারের খাদেম রহমত আলী হত্যা মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান আইনজীবী রথীশ চন্দ্র বাবুসোনার হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার তদন্তে বেশ কিছু বিবেচনা রেখেছে পুলিশ।

জঙ্গিদের মামলা পরিচালনা করায় উগ্রবাদী গোষ্ঠী প্রতিশোধ নিতে তাকে গুম করেছে-এমন একটি অনুমান যেমন রয়েছে তেমনি মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে তার ভূমিকার বিষয়টিও মাথায় রাখছে পুলিশ।

মুক্তিযুদ্ধের সময় রংপুরের আলবদর বাহিনীর কমান্ডার জামায়াত নেতা এ টি এম আজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য দিয়েছিলেন বাবুসোনা। আর এই সাক্ষ্যে তিনি জামায়াত নেতার ৭১ এর ভূমিকা তুলে ধরেছেন। আজহারের সাজার জন্য তার ওপরও ক্ষোভ রয়েছে জামায়াত-শিবিরের।

আর রংপুরের প্রভাবশালী আজহারুল ইসলামের ফাঁসির আদেশ হয়েছে ট্রাইব্যুনালে। আদেশের বিরুদ্ধে তার আপিল উচ্চ আদালতে মীমাংসার অপেক্ষায়।

পুলিশের বিবেচনায় আরও কিছু বিষয় রয়েছে। যেমন ব্যক্তিগত দ্বন্দ্ব, জমি-জমা, সম্পত্তি, নগদ অর্থ নিয়ে লেনদেন নিয়ে বিরোধ প্রভৃতি।

গত ৩০ মার্চ রংপুরের প্রখ্যাত এই আইনজীবী হঠাৎ উধাও হয়ে যাওয়ার পরই তাকে উদ্ধারে সর্বাত্মক চেষ্টা শুরু করে পুলিশ। তবে এখন পর্যন্ত কোনো অগ্রগতির কথা জানাতে পারেনি বাহিনীটি। যদিও জামায়াত-শিবিরের চার কর্মীসহ আট জনকে আটক করেছে তারা।

পুলিশ এই ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে তিন জনকে খুঁজছে। এদেরকে ধরতে পারলে তদন্তে অগ্রগতি হতে পারে বলে ধারণা তাদের। মোবাইল ফোনের কল লিস্ট খেকে এদেরকে চিহ্নিত করা হয়েছে।

যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসির দণ্ড পাওয়া জামায়াত নেতা এ টি এম আজহার

যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসির দণ্ড পাওয়া জামায়াত নেতা এ টি এম আজহারুল ইসলাম

 

 

রংপুর কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাবুল মিয়া  বলেন, ‘আমরা সব ধরনের তথ্য নিয়ে সন্দেহভাজনদের খুঁজছি। এখনো সবাইকে আটক করা সম্ভব হয়নি। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে একটা ভালো খবর দিতে পারব।’

রথীশ চন্দ্র বাবুসোনাকে উদ্ধারের দাবিতে তার অন্তর্ধানের পর থেকেই বিক্ষোভ, মানববন্ধন, কর্মবিরতি, কলম বিরতিসহ নানা ধরণের কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে রংপুরে।

গতকাল সোমবার সকাল থেকে অর্ধদিবস কলম বিরতি পালন করেন রংপুরের আইনজীবীরা। কর্মসূচিতে যোগ দেন আইনজীবীদের সহকারীরাও।

নিখোঁজ আইনজীবীর ছোট ভাই সাংবাদিক সুশান্ত ভৌমিকের করা অভিযোগ অপহরণ না নিখোঁজের মামলা হবে তাও নিয়েও সিদ্ধান্তহীনতায় পুলিশ। এ কারণে মামলাও হচ্ছে না।

৩০ মার্চ বাবু সোনা নিখোঁজের পরদিন তার ভাই রংপুর কোতয়ালি থানায় কারো নাম উল্লেখ না করে একটি অভিযোগ জমা দেন করেন। কিন্তু সেই অভিযোগটি এখনো মামলায় স্থানান্তর হয়নি।

রংপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান  বলেন, ‘আমরা সব চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। দ্রুত সময়ের মধ্যে আমরা তাঁকে উদ্ধারের বিষয়টি জানাতে পারব।’

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: