আজ: ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ১১:২০
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ শাহজাদপুরে প্রতিপক্ষের ভয়ে ৫ শতাধিক মানুষ গ্রামছাড়া

শাহজাদপুরে প্রতিপক্ষের ভয়ে ৫ শতাধিক মানুষ গ্রামছাড়া


পোস্ট করেছেন: মতপ্রকাশ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০২/০৪/২০১৮ , ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


ফারুক হাসান কাহার শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ 
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার নরিনা ইউনিয়নের বাতিয়া গ্রামে ৫ শতাধিক নারী,পুরুষ ও শিশু প্রতিপক্ষের হামলা ও নির্যাতনের ভয়ে ২ মাস ধরে বাড়ি ঘরে ফিরতে পারছেনা। এ সুযোগে তাদের বাড়ি ঘরে চলছে ব্যাপক লুটপাট। প্রায় প্রতি রাতেই লোকশুন্য এ সব বাড়ির ঘরের টিন খুলে লুট করে নিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
অপর দিকে বাবা মায়ের সাথে পালিয়ে থাকার কারণে শতাধিক শিশুর স্কুলে যাওয়া বন্ধ থাকায় তাদের লেখাপড়া ও বন্ধ হয়ে গেছে।তারা ২ মাস ধরে বাড়ি ফিরতে না পেরে অন্যত্র আশ্রয় নিয়ে চরম মানবেতর জীবন যাপন করছে। এ ব্যাপারে তারা স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।
মামলা সূত্রে জানাযায়,গত ১লা ফ্রেব্রুয়ারি সকালে আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব বিরোধের জের ধরে বাতিয়া গ্রামের ফকির গোষ্ঠি ও মন্ডল গোষ্ঠির মধ্যে ভয়াবহ রক্তক্ষয়ী হামলা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সংঘর্ষ কালে ফালাবিদ্ধ হয়ে ফকির গোষ্ঠির রাসেল ফকির (৩০) নামের এক যুবক নিহত হয়। এতে মন্ডল গোষ্ঠির ৩২ জনের নাম উল্লেখ সহ আরও অজ্ঞাত ২০/২৫ জনকে আসামী করে শাহজাদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনায় ফকির গোষ্ঠির লোকজনের হামলা ও নির্যাতনের ভয়ে মন্ডল গোষ্ঠির প্রায় ৫ শতাধিক নারী,পুরুষ ও শিশু বাড়িঘর ফেলে অন্যত্র পালিয়ে যায়। সেই থেকে গত ২ মাসধরে এ সব বাড়িঘরে চলছে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট। এ লুটের অংশ হিসাবে প্রায় প্রতি রাতেই ঘরের টিনখুলে নেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এ দিকে এ ঘটনার প্রায় ২ মাস কেটে গেলেও হামলা ও নির্যাতনের ভয়ে মন্ডল গোষ্ঠির লোকজন ও তাদের সমর্থক প্রামানিক ও সরকার গোষ্ঠির ৫ শতাধিক মানুষ বাড়ি ফিরতে না পেরে অন্যত্র আশ্রয় নিয়ে চরম মানবেতর জীবন যাপন করছে। এ ব্যাপারে চাঁদের প্রামাণিক, ছাত্তার মন্ডল, আসাদুল প্রামানিক, আব্দুল হাকিম,মিনা খাতুন,  আখি খাতুন, মোমেনা খাতুন, রনজিদা খাতুন বলেন,গত ২ মাস হল তাদের প্রতিপক্ষ ফকির গোষ্ঠির লোকজন তাদের বাড়িঘর ভাংচুর, লুটপাট চালিয়ে যাচ্ছে। যারা হত্যা মামলায় আসামী নয় তাদের কেও বাড়ি ফিরতে দিচ্ছেনা। তারা এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। শুধু তাইনয় প্রায় প্রতি রাতেই তারা তাদের কারো ঘরের চাল, কারো ঘরের বেড়ার টিন ও খুটি খুলে নিয়ে যাচ্ছে। এ ছাড়া গরু,বাছুর সহ অন্যান্য মালামাল লুট এখন নিত্য দিনের ঘটনায় পরিণত হয়েছে।
অপর দিকে বাতিয়া জুনিয়র উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্র রোমান (১৪), হযরত (১৪) , বাতিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী লামিয়া, ৩য় শ্রেণির ছাত্রী মিম জানায়,প্রতিপক্ষের হামলার ভয়ে বাড়িঘর ফেলে অন্যত্র পালিয়ে থাকায় তারা গত ২ মাস ধরে স্কুলে যেতে পারছেনা।ফলে তাদের লেখা পড়া বন্ধ হয়ে ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।তারা এখন বাবা-মাকে নিয়ে বাড়ি ফিরতে চায়। যেতে চায় স্কুলে। করতে চায় লেখা পড়া। এ জন্য তারা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।
এ ব্যাপারে রাসেল হত্যা মামলার বাদী জিল্লুর রহমান তাদের সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, গ্রামে কোন লুট পাট হচ্ছেনা। তারা স ইচ্ছায় গ্রামে ফিরছেনা। এর জন্য তারা নিজেরাই দায়ী।
এ ব্যাপারে শাহজাদপুর থানার ওসি খাজা গোলাম কিবরিয়া বলেন,বাতিয়া গ্রামে কোন লুটপাটের ঘটনা ঘটছেনা। বারবার বলার পরেও তারাগ্রামে না ফিরে মিথ্যা অভিযোগ করছে। তারা ফিরে এলে পুলিশ তাদের সকল নিরাপত্তা দেবে

Comments

comments

Close
%d bloggers like this: